প্রেমিকার ফিরিয়ে দেয়া উপহারে আগুন জ্বালিয়ে শোক, ধরালেন সিগারেটও

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রেমিকার ফিরিয়ে দেওয়া উপহারে আগুন জ্বালিয়ে শোক করছেন ঢাবি ছাত্র  © টিডিসি ফটো

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) দর্শন বিভাগের এক শিক্ষার্থী তার প্রেমিকার ফিরিয়ে দেওয়া উপহারে আগুন জ্বালিয়ে শোক প্রকাশ করেছেন। পরে তিনি উপহার পোড়ানো আগুন থেকে একটি সিগারেট ধরিয়ে তা পানও করছেন। এমনই একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। ওই ছাত্র নিজেই ভিডিওটি ধারণ করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই শিক্ষার্থীর নাম শাহীন আলম। তিনি দর্শন বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র।প্রেমিকার আচরণে কষ্ট পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের ছাদে বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) এ ঘটনাটি ঘটিয়েছেন বলে জানা গেছে।

শাহীন আলম জানান, বেকারত্বের কারণে দীর্ঘ আট বছর প্রেমের সম্পর্ক থাকার পরও তার প্রেমিকা তাকে প্রত্যাখ্যান করেছে। শুধু তাই নয়, তার নিজের দেয়া উপহারসামগ্রী ফিরিয়েও দিয়েছে। এতে তিনি খবই মর্মাহত হয়েছেন।

শাহীন নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে ভিডিওটি শেয়ার করে লিখেছেন, যে আঁচল দিয়া একদিন খাবার খাইয়ে মুখ মুছে দিয়েছিল, সেই আঁচলে আজ নিজ হাতে আগুন লাগিয়েছি। সেই একই জলন্ত আঁচলের আগুন দিয়া সিগারেট ধরানোর যন্ত্রণাটা তুমি বুঝবেনা, প্রিয়তমা।

‘‘জীবনের প্রথম যতটুকু আবেগ দিয়া চিঠিটা লিখেছিলাম, কুরিয়ারের মাধ্যমে সেই চিঠি, শাড়ি, চুড়ি, মালা, হৃদয়ের আঁচড় দিয়ে আকাঁ ছবিগুলো ফেরত দেওয়া ছিল ততটাই ঘৃণামিশ্রিত তোমার।’’

তিনি আরও লিখেন, দেখা করার ভয়ে আজিমপুর থেকে মহসিন হলে কুরিয়ার করলা। শেষ দেখাটাও দিলানা। অথচ এই মহসিন হলের মাঠের প্রত্যেকটা দুর্বাও আমাদের দুজনকে চেনে।

শাহীন আলম আরো লিখেন, যে আগুনটা জ্বলছে, সেটা আমার বুকে জ্বলা তোমার দেয়া অবহেলা আর যন্ত্রণার বাহ্যিক আর্তচিৎকার। সুখের সন্ধান করতে গিয়ে আমাকে বলির পাঠা বানিয়ে সুখ যদি পাও,সুখে থাক প্রিয়তমা। আর পিছু ডাকবো না তোমায়,বলবো না আর কেমন আছো, চাইবো শুধু সুখেই থাক,কারো অবহেলায় না বাঁচো। ব্যস্ত এ শহরের অলিগলিতে যদি হয়ে যায় দেখা, জিজ্ঞেস করোনা কেমন আছেন? জানবে শুধু হাহাকার নিয়ে বেঁচে আছি আমি নাটোরের বনলতা সেন।

সবশেষে তিনি লিখেন, বেকারত্বের কাছে হেরে গেল বহু বছরের ভালবাসা, চুকে গেল জীবনের সব লেনদেন।

তবে শাহীন আলমের কাছে তার প্রেমিকার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি কোন কথা বলতে চাননি, এমনকি পরিচয়ও দিতে চাননি। তিনি বলেছেন, আমি তাকে ভালবাসি। এই ভালবাসার জন্যই তার বিন্দুমাত্র ক্ষতি হোক, তা আমি চাই না।


x

সর্বশেষ সংবাদ