কারিগরি স্কুলে শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালা চূড়ান্ত

ভোকেশনাল
কারিগরি শিক্ষার্থী  © ফাইল ছবি

আগামী বছর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেযে শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালা প্রায় চূড়ান্ত করেছে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর। গতকাল মঙ্গলবার ২০২৩ সালে শিক্ষার্থী ভর্তির পর্যালোচনা সভায় এটি চূড়ান্ত করা হয়।

জানা গেছে, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় “১০০টি উপজেলায় ১টি করে টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ স্থাপন” প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক, “বিদ্যমান ৬৪টি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের সক্ষমতা বৃদ্ধি” শীর্ষক প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (ভোকেশনাল), পরিচালক (পরি: ও উন্নয়ন), কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরিচালক (কারিকুলাম), নারায়ণগঞ্জ সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ এবং ধামরাই সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ এর অধ্যক্ষগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভার কার্যবিবরণী থেকে জানা গেছে, ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে ১৩৪টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ এবং “১০০টি উপজেলায় ১টি করে টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ স্থাপন” প্রকল্পের আওতায় নতুন চালুকৃত প্রতিষ্ঠানসমূহে ৬ষ্ঠ, ৭ম, ৮ম এবং ৯ম শ্রেণীতে শিক্ষার্থী ভর্তি বিষয়ে পর্যালোচনা ও আলোচনা শেষে শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালা চূড়ান্ত করা হয়।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রি ভোকেশনাল অর্থাৎ ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত পুরাতন ৬৪টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেযে ষষ্ঠ শ্রেণিতে শুধুমাত্র ১টি শিফটে ৬০ জন করে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হবে। তবে “বিদ্যমান ৬৪টি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের সক্ষমতা বৃদ্ধি” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় যে সকল প্রতিষ্ঠানের নির্মাণাধীন একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে সেসকল প্রতিষ্ঠানে ২টি শিফটে (প্রতি শিফটে ৬০ জন করে ১২০ শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে।

২০২১ ও ২০২২ সালে চালুকৃত ৭০টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ ২০২১ ও ২০২২ সালে চালুকৃত ৭০টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে ২টি সেকশনে ৬০ জন করে (৬০×২=১২০ জন) ছাত্র- ছাত্রী ভর্তি করা হবে। “১০০টি উপজেলায় ১টি করে টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ স্থাপন” প্রকল্পের আওতায় প্রস্তাবিত নতুন চালুকৃত সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ শুধুমাত্র ১টি সেকশনে ৬০ জন করে (৬০×১=৬০ জন) ছাত্র- ছাত্রী ভর্তি করা হব।

এসএসসি (ভোকেশনাল) শ্রেণি ৯ম পুরাতন ৬৪টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেje ২ শিফটে প্রতি ট্রেডে ৪০ জন করে (৪০x২=৮০ জন) ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হবে।  আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে নতুন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা যাবে।

২০২১ ও ২০২২ সালে চালুকৃত ৭০টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেje১টি সেকশনে প্রতি ট্রেডে ৪০ জন করে (৪০×১=৪০ জন) ছাত্র- ছাত্রী ভর্তি করা হবে। আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে নতুন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা যাবে।

“১০০টি উপজেলায় ১টি করে টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ স্থাপন” প্রকল্পের আওতায় প্রস্তাবিত নতুন চালুকৃত সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ ১টি সেকশনে প্রতি ট্রেডে ৪০ জন করে ছাত্র- ছাত্রী ভর্তি করা হবে।

এছাড়া ৭ম, ৮ম ও ৯ম শ্রেণিতে আসন খালি থাকা ও ড্রপ আউটের কারণে শূন্য আসনে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা যাবে; পুরাতন ৬৪টি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে সক্ষমতা বৃদ্ধি সাপেক্ষে পর্যায়ক্রমে ৭ম ও ৮ম শ্রেণিতে শিফট বৃদ্ধি করা হবে।

কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর জানিয়েছে, বেসরকারি স্বতন্ত্র কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রি-ভোকেশনাল কোর্স চালু করার নিমিত্ত এ সংক্রান্ত নীতিমালা পরিবর্তনে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবে।


x

সর্বশেষ সংবাদ