খুবি থেকে প্রথম পুলিশের ডিআইজি জিহাদুল কবির

জিহাদুল কবির
জিহাদুল কবির  © টিডিসি ফটো

বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক (অ্যাডিশনাল ডিআইজি) জিহাদুল কবির পিপিএম পদোন্নতি পেয়ে উপমহা পুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি) হয়েছেন। বুধবার (১১ মে) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের এক পরিপত্রে এ তথ্য জানানো হয়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটদের মধ্যে তিনিই প্রথম পুলিশের ডিআইজি হলেন।

জিহাদুল কবির সর্বশেষ অ্যাডিশনাল ডিআইজি হিসেবে ঢাকা রেঞ্জে কর্মরত ছিলেন। পদোন্নতি দিয়ে তাঁকে ঢাকা পুলিশ হেডকোয়ার্টারে ন্যস্ত করা হয়েছে। ১৯৯৭ সালে তিনি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরেস্ট্রি এন্ড উডটেকনোলজি ডিসিপ্লিন থেকে গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি লাভ করেন। ২০তম বিসিএস-এ এএসপি হিসেবে নির্বাচিত হয়ে পুলিশে যোগদানের পর তাঁর প্রথম পোস্টিং হয় গৌরনদী সার্কেল (এএসপি) হিসেবে।

২০১২ সালে প্রথম পুলিশ সুপার হিসেবে মাগুরা জেলায়, এরপর পর্যায়ক্রমে ২০১৫ সালে রাজবাড়ি, ২০১৬ সালে পাবনা জেলা ও ২০১৮ সালে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ২০১৯ সালে অতিরিক্ত মহাপুলিশ পরিদর্শক হিসেবে পদোন্নতি পান।

আরও পড়ুন: ইনটেলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হলেন খুবি ছাত্র হেলাল

চাকরি জীবনে তিনি আইভরি কোস্ট ও লাইবেরিয়ায় দুই দফা ইউএন মিশনে সাফল্যের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৭ সালে ‘ইউএন মেডেল ফর দ্য সার্ভিস ফর পিস ইন আইভরি কোস্ট’ লাভ করেন। এছাড়া ২০১০ সালে একই পুরস্কার লাইবেরিয়াতেও পান। ২০০৯ ও ২০১১ সালে আইজিপি ব্যাজ, ২০১৪ সালে পিপিএম পদক লাভ করেন। ১৯৭৫ সালের ৪ জানুয়ারি বাগেরহাট জেলার কাড়াপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন জিহাদুল কবির।

জিহাদুল কবিরের সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়েছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহমুদ হোসেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটদের মধ্যে বাংলাদেশ পুলিশের প্রথম ডিআইজি হিসেবে পদোন্নতি লাভ করায় জিহাদুল কবিরকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। 

খুবি উপাচার্য বলেন, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটরা এখন বিভিন্ন ক্যাডার সার্ভিসসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন পর্যায়ে সুনামের সাথে কাজ করছেন। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ বন বিভাগের প্রধান বন সংরক্ষক হিসেবে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েট অধিষ্ঠিত হয়েছেন। আশা করা যায় আগামী কয়েক বছরের মধ্যে প্রশাসনসহ বিভিন্ন ক্যাডারে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মরত গ্র্যাজুয়েটরা শীর্ষ পর্যায়ে পৌঁছাতে সক্ষম হবেন।

এছাড়া পৃথক পৃথক শুভেচ্ছা বার্তায় তাকে আরও অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, জীব বিজ্ঞান স্কুলের ডিন ও রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক খান গোলাম কুদ্দুস, ফরেস্ট্রি এন্ড উডটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. ইফতেখার শাম্স। এছাড়া তাঁকে আরও অভিনন্দন জানিয়েছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মো. শরীফ হাসান লিমন ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. তরুণ কান্তি বোস।


x

সর্বশেষ সংবাদ