জাপানে ৩-৬ মাস মেয়াদী এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম, আবেদন শেষ ২০ জুন

জাপানে ৩-৬ মাস মেয়াদী এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম, আবেদন শেষ ২০ জুন
মাতসুমাই ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন  © সংগৃহীত

তিন থেকে ৬ মাস মেয়াদী এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের সুযোগ দিচ্ছে জাপানের মাতসুমাই ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন। বাংলাদেশসহ যে কোনো দেশের নন-জাপানিজ শিক্ষার্থীরা এ এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের শেষ সময আগামী ২০ জুন। গত ১ এপ্রিল থেকে আবেদন শুরু হয়েছিল।

পড়ুন স্নাতকোত্তর ও পিএইচডিতে ফুল-ফ্রি স্কলারশিপ দিচ্ছে মালয়েশিয়ান সরকার

এ এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের আওতায় শিক্ষার্থীদের সকল খরচ বহন করা হবে। বিমানে যাতায়াত, চিকিৎসা ভাতা ও জীবনযাত্রার সম্পূর্ণ খরচ প্রদান করা হবে। মাসিক ভাতা হিসেবে ২ লাখ ২০ হাজার জাপানিজ ইয়েন প্রদান করা হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা।

মেডিসিন, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং প্রাকৃতিক গবেষণা ক্ষেত্র পছন্দ করে এমন শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। এছাড়া ডক্টরাল ডিগ্রি থাকতে হবে। আইইএলটিএস বা টোয়েফল স্কোরের প্রয়োজন হবে না। 

১৯৭৯ সালে এ এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম চালু হয়। এ ফাউন্ডেশনের মূল লক্ষ্য হল মানুষকে বৈজ্ঞানিক ও সাংস্কৃতিক বিনিময় বুঝতে সক্ষম করে তোলা এবং কীভাবে সেগুলি থেকে মুক্তি পাওয়া যায় সে সমাধান বের করা। এই প্রোগ্রাম একাডেমিক এবং সাংস্কৃতিক বিনিময় করে।

আরও পড়ুন যুক্তরাজ্যে ইউরোপিয়ান কমিশনের কনফারেন্স, আবেদন শেষ ২৬ জুন

সুযোগ-সুবিধাসমূহ:

* বিমানে যাতায়াতের খরচ।
* মাসিক ভাতা হিসেবে ২ লাখ ২০ হাজার জাপানিজ ইয়েন প্রদান করা হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা।
* আনুসঙ্গিক খরচ হিসেবে ১ লাখ ২০ হাজার জাপানিজ ইয়েন প্রদান করা হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ৮২ হাজার টাকা।
* গবেষণা ভাতা প্রদান করা হবে। 
* স্টাডি ট্যুরের খরচ।
* চিকিৎসা ভাতা প্রদান করা হবে।

যোগ্যতার মানদণ্ড:

* নন-জাপানিজ হতে হবে।
* পিএইচডি ডিগ্রিধারী হতে হবে।
* বয়স ৪৯ এর নিচে হতে হবে।
* জাপানি হোস্ট ইনস্টিটিউট থেকে একটি আমন্ত্রণপত্র থাকতে হবে।
* ইংরেজি বা জাপানি ভাষায় দক্ষ হতে হবে।
* নিজ দেশে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে হবে।
* মেডিসিন, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং প্রাকৃতিক গবেষণা ক্ষেত্র পছন্দ করে এমন শিক্ষার্থী।

প্রয়োজনীয় নথিপত্র:

* আবেদন ফরম। 
* গবেষণা পরিকল্পনা।
* পাবলিকেশনের কপি।
* সিভি।
* রিকমেন্ডেশন লেটার।
* একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট।
* আমন্ত্রণ পত্র।

আবেদন প্রক্রিয়া:

অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আবেদন করতে ও বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন এখানে


x

সর্বশেষ সংবাদ