প্রথম মেধাতালিকার ভর্তি শেষে

৭৪ শতাংশেরও বেশি আসন ফাঁকা শাবিপ্রবিতে

ভর্তি
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়  © ফাইল ছবি

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ২০২০-২১ সেশনের স্নাতক প্রথম বর্ষের প্রথম ভর্তি হয়েছেন মাত্র ২৫ দশমিক ৭৮ শতাংশ শিক্ষার্থী। প্রথম মেধাতালিকার ভর্তি কার্যক্রম শেষে আসন ফাঁকা রয়েছে ৭৪ দশমিক ২২ শতাংশ।

আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. মুশতাক আহমেদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন: আগামী সপ্তাহে ৪৩তম বিসিএস প্রিলির ফল

এদিকে, আগামী ১৭ ও ১৮ জানুয়ারি দ্বিতীয় মেধাতালিকার ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। এতে ফাঁকা থাকা ১ হাজার ১৭৮টি আসনের বিপরীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলের পরবর্তী মেধাক্রম থেকে আরও ১ হাজার ৭৮০ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তির জন্য ডাকা হবে।

ভর্তি কমিটি সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদে ৯৮৫টি আসন বরাদ্দ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে ২৮১ জন ভর্তিচ্ছু অংশ নিয়েছেন। যা মোট আসনে প্রায় ২৮.৫২ শতাংশ। এর মধ্যে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘এ-১’ ইউনিটে ২৫৫ জন ও ‘এ-২’ অনুষদের আর্কিটেকচারে ২৬ জন সাক্ষাৎকারে অংশ নিয়েছেন। এতে প্রায় ফাঁকা ছিলো ৭২ শতাংশ আসন।

আরও পড়ুন: ধানকাটায় ছাত্রলীগ অংশ না নিলে দেশে খাদ্য সংকট দেখা দিত: ত্রাণমন্ত্রী

অন্যদিকে সামাজিক অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের মানবিক বিভাগের ২৯৯ আসনের বিপরীতে ভর্তি হয়েছেন ৬০ জন, বাণিজ্য বিভাগের ৮৩ আসনের বিপরীতে ১৯ জন ও বিজ্ঞান বিভাগের ২২০ আসনের বিপরীতে ৪৯ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ৪, ৫ ও ৬ জানুয়ারি স্নাতক প্রথম বর্ষের ‘এ’ ইউনিটে বিজ্ঞান বিভাগের ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। তিন দিনব্যাপী সাক্ষাৎকারে দুই ইউনিটের ৯৮৫টি আসনের মধ্যে শুধুমাত্র ২৮১ জন ভর্তিচ্ছু অংশ নিয়েছেন।

আরও পড়ুন: পাবিপ্রবির প্রথম শিক্ষার্থী হিসেবে আমাজনে চাকরি পেলেন রায়হান

তিনদিনের সাক্ষাৎকার শেষে কোন ভর্তিচ্ছু না পাওয়া বিভাগগুলো হলো- রসায়ন, ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সাইন্স, ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টি টেকনোলজি, জিওগ্রাফি এন্ড এনভায়রনমেন্ট, গণিত, সমুদ্রবিজ্ঞান, পেট্রোলিয়াম এন্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং ও পরিসংখ্যান বিভাগ। এসব ডিপার্টমেন্টগুলোতে ৪৩৫টি আসন রয়েছে।

এছাড়া ‘এ-১’ ইউনিটের ১৮টি ডিপার্টমেমেন্টে ৬৪০টি আসন এখনো ফাঁকা রয়েছে। অন্যদিকে ‘এ-২’ ইউনিটের ৩০ আসনের মধ্যে সাক্ষাৎকারে অংশ নিয়েছেন ২৬ জন ভর্তিচ্ছু। এতে ৪টি আসন ফাঁকা রয়েছে। তিন দিনের সাক্ষাৎকার শেষে দুই ইউনিটে মোট ৬৪৪টি আসন ফাঁকা রয়েছে।


মন্তব্য

x