অর্ধ শতাব্দী পুরনো ৫০টি গাছ কাটছে রুয়েট

অর্ধ শতাব্দী পুরনো ৫০টি গাছ কাটছে রুয়েট
অর্ধ শতাব্দী পুরনো ৫০টি গাছ কাটছে রুয়েট  © সংগৃহীত

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) কাটা হচ্ছে অর্ধশতাব্দী প্রাচীন বৃক্ষ। ইতোমধ্যে ১৫টি গাছ কাটা হয়েছে। প্রতিটি গাছের মূল্য প্রায় ৫০ হাজার টাকা হলেও রুয়েট কর্তৃপক্ষ ১৫টি গাছ মাত্র ১.২৭ লাখ টাকায় বিক্রি করেছে রুয়েটেরই এক কর্মচারীর কাছে।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, নতুন প্রশাসনিক এবং একাডেমিক ভবন নির্মাণের জায়গা তৈরি করতে এসব গাছ বিক্রি করা হয়েছে। যথাযথ বিধি মেনেই এসব গাছ বিক্রি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ক্যাম্পাসের সিনিয়র সহকারী নিরাপত্তা পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন বলেন, যথাযথ ক্রয় বিধি মেনে রুয়েটের কর্মচারী গোলাম মোস্তফার কাছে ১৫টি গাছ বিক্রি করা হয়েছে।

যেসব গাছ কাটা হয়েছে এবং কাটার জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে সেগুলোর মধ্যে আছে আম, লিচু, মেহগনি, কড়ই, মিনজিরি ও কৃষ্ণচূড়া।

তবে, বন বিভাগ এ বিষয়ে কিছুই জানে না। রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আহমেদ নিয়ামুর রহমান বলেন, সরকারি গাছ কাটার জন্য কর্তৃপক্ষের বাধ্যতামূলকভাবে অনুমোদন নেওয়া উচিত এবং বন বিভাগের উচিত গাছের দাম মূল্যায়ন করা।

তিনি দাবি করেন, রুয়েট কর্তৃপক্ষ গাছ কাটার বিষয়ে বন বিভাগকেও অবহিত করেনি।

রুয়েটের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মো. সেলিম হোসেন বলেন, আশির দশক থেকে ক্যাম্পাসে কোনো উন্নয়ন কর্মকাণ্ড হয়নি। সম্প্রতি সরকার ছয়শ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে। যার আওতায় আছে ১০টি ১০ তলা ভবন নির্মাণ, এজন্য মোট ৫০টি গাছ কাটা হবে। ইতোমধ্যে এই কর্মসূচির আওতায় ১৫টি গাছ কাটা হয়েছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ