উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবেন তৃতীয় লিঙ্গের শিক্ষার্থীরা

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়
বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়   © ফাইল ফটো

সমাজের পিছিয়ে পড়া ও তৃতীয় লিঙ্গের শিক্ষার্থীদের এসএসসি কর্মসূচিতে ভর্তি হওয়ার সুযোগ দিচ্ছে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি)। এই সিদ্ধান্তের অংশ হিসেবে কক্সবাজারের ১৫ জন তৃতীয় লিঙ্গের শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের কক্সবাজার উপকেন্দ্র কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হচ্ছেন। বেসরকারি দুটি সংস্থার উদ্যোগে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) এ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে কর্মরত সংস্থা হাটখোলা ফাউন্ডেশন ও জয়োধ্বনি’র উদ্যোগে কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে নিজেদের অনুভূতি প্রকাশ করে বক্তব্য দেন তৃতীয় লিঙ্গের শিক্ষার্থী আঁখি, মোহাম্মদ হাসান, জকির উদ্দিন, রহিম উল্লাহ, মায়েনা, জোনাকি, হাসান মাহমুদ আব্দুল্লাহ, আবুল মনসুর ও আঁখিমনি।

এসময় বক্তারা বলেন, দেশের শিক্ষাক্ষেত্রে কক্সবাজার থেকে অসাধারণ অভিযাত্রা শুরু হলো। একটি সমতাভিত্তিক, বৈষম্যহীন, সুখী-সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনে এটি মাইলফলক হয়ে থাকবে।

এসময় উচ্চ শিক্ষা লাভের দ্বার উন্মোচন করে দেওয়ায় উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তৃতীয় লিঙ্গের শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমাদের সম্পর্কে দেশবাসীর দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন ঘটাতে হবে। সমতাভিত্তিক সমাজ তৈরি করতে পারলে আমরা বৈষম্য ও বঞ্চনার শিকার হব না। উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করে আমরাও জাতীয় উন্নয়নে অবদান রাখতে পারব।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন নারী সংগঠক ও কক্সবাজার শাখা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওয়ার কাবেরী, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কক্সবাজারের উপ-আঞ্চলিক পরিচালক শ্যাম রঞ্জন কর্মকার, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, কক্সবাজার কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগের উপ-কমিশনার সুশান্ত পাল, আইনজীবী আমিনুল হক আমিন, আমানুল হক আমান, জয়োধ্বনি’র নির্বাহী পরিচালক হেলাল মোরশেদ সোহাগ ও হাটখোলার নির্বাহী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদৌস।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ