ঢাবি ছাত্রীর আত্মহত্যার নেপথ্যে ‘প্রেম’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী  © সংগৃহীত

পছন্দের ছেলেকে বাদ দিয়ে অন্যের সঙ্গে জোর করে বিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি নেয়ায় আত্মহত্যা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী ফারিহা তাবাসসুম রূম্পা। রুম্পার সহপাঠী ও ঘনিষ্টজন সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ বর্ষে পড়ুয়া রুম্পার গ্রামের বাড়ি পাবনা জেলার ঈশ্বরদী থানাধীন দীঘায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের শামসুন নাহার হলের আবাসিক ছাত্রী তিনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্ত দিয়ে রুম্পার একাধিক সহপাঠী জানান, ব্যক্তিগতভাবে রুম্পা একজন ছেলেকে পছন্দ করত। যা পরিবার মেনে নেয়নি। এর মধ্যেই বাবা-মা তার বিয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। মূলত এ বিষয়টি নিয়েই পারিবারে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছিল। পুরো বিষয়টি নিতে না পেরেই আত্মহত্যা করেছে রুম্পা।

ওই সহপাঠীর দাবি, ওই ছাত্রীর প্রতি তার ভাই খুবই নির্দয় ছিল এবং খারাপ আচরণ করেছে। আত্মহত্যার পেছনেও এটাও বড় কার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী দ্যা ডেইলি কাম্পাসকে বলেন, বিষয়টি খুবই মর্মান্তিক। আমরা ইতোমধ্যেই সংশ্লিষ্ট থানায় খবর দিয়েছি। বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত করে তারা ব্যবস্থা নেবে। তিনি আরো বলেন, এ ধরনের কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা কাম্য নয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ