ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট

হল খুলে পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে মানববন্ধনের ডাক

ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট
ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট  © ফাইল ফটো

আবাসিক হল খুলে দিয়ে আবাসনের ব্যবস্থা নিশ্চিত করার পর ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের বিভিন্ন পর্বের পরীক্ষা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে আগামীকাল মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করবে তারা।

শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, তারা সবাই ঢাকার বাইরে থেকে পরীক্ষা দিতে এসেছে। কিন্তু ঢাকা শহরে তাদের থাকার জায়গা নেই। অন্যান্য পলিটেকনিকে হল খুলে পরীক্ষা নিতে পারলে তাদের হল খুলে পরীক্ষা নিতে সমস্যা কোথায়? 

তারা আরও জানায়, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষসহ বিভিন্ন হলের হল সুপারদের সাথে আলোচনা করে কোনো সমাধানে না আসায় আগামীকাল মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হবে। সকাল ১০টায় ক্যাম্পাসে এ কর্মসূচি পালন কর াহবে বলে জানান তারা।

জানতে চাইলে ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে অধ্যক্ষ ইঞ্জি. কাজী জাকির হোসেন দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, সরকারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই সিদ্ধান্তের বাইর গিয়ে কোন কিছু করা যাবে না। তাই হলে শিক্ষার্থীরা থাকতে পারবে না। তবে শিক্ষার্থীদের হল খুলে দেওয়ার বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।

জানা গেছে,  ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে শিক্ষার্থীদের জন্য ৫টি আবাসিক হল রয়েছে। ছাত্রদের জন্য ৩টি এবং ছাত্রীদের জন্য ২টি আবাসিক হল রয়েছে।

করোনা সংক্রমনের কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকার পর সম্প্রতি ইনস্টিটিউটের বিভিন্ন পর্বে ফাইনাল পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দ্বিতীয় পর্বের প্র্যাক্টিকাল পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তাছাড়া আগামী ২২ তারিখে দ্বিতীয় ও ৬ষ্ঠ পর্বের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তাছাড়াও বাকি পর্বের লিখিত পরীক্ষাও এ মাসে শুরু হবে।

সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আবাসিক হল বন্ধ রেখে এসব পরীক্ষা নেওয়া হবে। তবে শিক্ষার্থীরা এ সিদ্ধান্তের বিপক্ষে। সোমবার এক প্রকার জোর করেই তিনটি হলে বেশকিছু ছাত্র উঠেছেন। পরে হল প্রশাসন তাদের চলে যেতে চাপ সৃষ্টি করলে দুটি হলের ছাত্ররা বের হয়ে যান। যদিও জহির রায়হান হলের কয়েকজন শিক্ষার্থীরা এখনও অবস্থান করছেন।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ