পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের সংকট নিরসনের দাবি ছাত্র ফেডারেশনের

পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের সংকট নিরসনের দাবি ছাত্র ফেডারেশনের
  © লোগো

করোনা পরিস্থিতিতে দেশের সাড়ে চারশোর বেশি পলিটেকনিকে অধ্যয়নরত হাজার হাজার শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন চরম অনিশ্চয়তায়। উচ্চ মাধ্যমিকের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত আসলেও পলিটেকনিকে পড়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। কারিগরি শিক্ষাবোর্ডও যেন নিশ্চুপ। এমন অনিশ্চয়তায় অনেকেই হারিয়ে ফেলছেন পড়াশোনার ইচ্ছা। এমনিতেই পলিটেকনিকে শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়ার হার অনেক বেশি তার ওপর এ ধরণের অনিশ্চয়তা এই সংকটকে আরো বাড়িয়ে তুলছে।

সোমবার (৪ জানুয়ারি) বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম মোস্তফা ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজন এক যুক্ত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

ছাত্র ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে পলিটেকনিক ও কারিগরি শিক্ষার্থীদের পরীক্ষাগ্রহণসহ চলমান একাডেমিক সংকট সমাধানে গণতান্ত্রিক ও বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্ত ও নীতি ঘোষণার জোর দাবি জানান।

নেতৃবৃন্দ আরও জানান, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে সপ্তম পর্ব সমাপনী পরীক্ষা দিয়ে অষ্টম পর্বে ইন্ডাস্ট্রিয়াল এটাচমেন্ট শুরু হয়ে যায় শিক্ষার্থীদের। অন্যান্য সকল পর্বের সমাপনী শেষ হয়ে যায় ডিসেম্বরেই। ২০২০ সালের মার্চের মধ্যেই মিডটার্ম পরীক্ষাও হয়ে যায় কিন্তু করোনার কারণে চলমান ছুটিতে যেন কোন সিদ্ধান্তই আসছিল না। ২০২০ সালের জুনেই সকলের পর্ব সমাপনী পরীক্ষা হয়ে যাওয়ার কথা কিন্তু তা সম্ভব হয় নি, পাওয়া যায় নি কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের কোনো সিদ্ধান্ত। অষ্টম পর্বের শিক্ষার্থীদের ইন্ডাস্ট্রিয়াল এটাচমেন্ট শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০২০ সালের জুন মাসে। অর্থাৎ ডিপ্লোমা শেষ করে সবারই কোনো না কোনো পরিকল্পনা ছিল, কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তহীনতার কারণে এখন তাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হতাশার গহ্বরে তলিয়ে যাচ্ছে।

তারা জানান, শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে প্রতিবার ঘোষণার সময় পলিটেকনিকের শিক্ষার্থীরাও আশায় বুক বেঁধেছিলেন। কিন্তু বারবার সে আশা নিরাশায় পর্যবসিত হয়েছে। গত ৩০ ডিসেম্বর ২০২০, তারিখে শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনের চলমান লাইভে সাংবাদিকদের মাধ্যমে পলিটেকনিকের শিক্ষার্থীরা শিক্ষামন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের এই রকম দিশাহীন পরিস্থিতি চলতে পারে না। শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন চরম অনিশ্চয়তার মুখে রেখে কোনভাবেই সামনে আগানো সম্ভব নয়। তাই ১৩ লক্ষের বেশি কারিগরি শিক্ষার্থীর চলমান সমস্যা সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি বিশেষ আহ্বান ছাত্র ফেডারেশনের।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ