করোনায় এতিম হওয়া শিশুদের শিক্ষা ব্যয় সরকার মেটাবে: কেজরিওয়াল

কেজরিওয়াল
ভারতের দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল  © ফাইল ফটো

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বাবা অথবা মায়ের মৃত্যু হলে সেই সন্তানের শিক্ষা ব্যয় রাজ্য সরকার মেটাবে বলে জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আজ মঙ্গলবার দিল্লিতে মহামারি কবলিত দরিদ্র পরিবারগুলোর জন্য প্রণোদনা ঘোষণা দেওয়ার সময় এ কথা জানান তিনি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে এ কথা জানানো হয়েছে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাবা-মায়ের মৃত্যু হলে সেই সন্তানের শিক্ষা ব্যয় মেটাবে সরকার।

টেলিভিশন বক্তৃতায় আম আদমি পার্টির এই নেতা বলেন, সবার হয়তো কার্ড নেই বা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। এক্ষেত্রে যে বলবে সে অভাবী তাকেই দিতে হবে। যেহেতু তার প্রয়োজন তাকে আগে খাদ্য দিতে হবে।

এ ছাড়াও প্রতিটি দরিদ্র পরিবার এ মাসে ৫ কেজি বাড়তি মিলে মোট ১০ কেজি রেশন পাবে এবং যে পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে তাদেরকে মাসে আড়াই হাজার রুপি করে দেওয়ার ঘোষণা দেন কেজরিওয়াল। সন্তানের বয়স ২৫ বছর পূর্ণ হওয়ার আগ পর্যন্ত এই ভাতা চলতে থাকবে বলেও জানান তিনি।

মাসিক রেশনের পাশপাশি এসব অভাবী পরিবারগুলোকে এককালীন ৫০ হাজার রুপি করে দেয়া হবে।

আরও পড়ুন: ‘সারা বিশ্বের মিডিয়ার কাছে বাংলাদেশের ইমেজ প্রশ্নবিদ্ধ করেছে’

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে পর্যুদস্ত গোটা ভারত। বিশেষ করে দিল্লির অবস্থা সবচেয়ে ভয়াবহ। হাসপাতালে শয্যা সংকট, অক্সিজেন সংকটে ভেঙে পড়েছে দিল্লির চিকিৎসা ব্যবস্থা।

তবে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসতে শুরু করেছে। যদিও আজ ভারতজুড়ে করোনায় মৃত্যুর রেকর্ড গড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় চার হাজার ৩১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে কমতে শুরু করেছে সংক্রমণ। গত ৫ এপ্রিলের পর এই প্রথম ২ত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ পাঁচ হাজারের নিচে নেমেছে। অথচ কয়েকদিন আগে দৈনিক ৩০ হাজার করেও করোনায় আক্রান্ত হয় দিল্লিতে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ