সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী ছাত্রলীগ নেতার, করেন মারধরও

সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী ছাত্রলীগ নেতার, করেন মারধরও
  © টিডিসি ফটো

রাজধানীর সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে নারী সহকর্মীকে শারীরিক হেনস্থার অভিযোগ ওঠেছে। এ বিষয়ে সূত্রাপুর থানায় ‘মারধর এবং শ্লীলতাহানীর’ অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই ছাত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সোহরাওয়ার্দী কলেজ ক্যাম্পাসের মধ্যেই এ ঘটনা ঘটেছে। 

এ ঘটনার অভিযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব। তিনি সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। অভিযোগকারী সাদিয়া খন্দকার। তিনি একই কলেজের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষার্থী এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য।

শারীরিকভাবে হেনস্থার শিকার সাদিয়া খন্দকার বলেন, কলেজে রাজনৈতিক মাধ্যমে রাকিবের সঙ্গে পরিচয়। তিনি প্রায়ই আমাকে উত্ত্যক্ত করতেন। ক্যাম্পাসে বলে বেড়াতেন তার সঙ্গে আমার নাকি সম্পর্ক আছে। এই মিথ্যাচার প্রচারের কথা ক্যাম্পাসে ছাত্র সংসদের সামনে জানতে চাইলে তিনি আমাকে গায়ে হাত তোলেন, চড়-ঘুষিও দিয়েছেন।   

অভিযুক্ত রাকিব বলেন, তার সঙ্গে আমার কোনো ভাল সম্পর্ক ছিল না। আমি ছাত্রলীগ করি। সেও ছাত্রলীগ করতো একসময়। সেই হিসাবে তার সঙ্গে আমার পরিচয়।

তিনি আরও বলেন, বৃহস্পতিবার সে আমাকে এসে জিজ্ঞেস করছিল- আমি নাকি তার বিষয়ে আমার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে বেড়াচ্ছি। একপর্যায়ে সে আমার শার্টের কলার চেপে ধরে। আমি দৌড়ে ছাত্র সংসদে গেলে ওইখানেও বড় ভাইয়েরা আমাকে মারধর শুরু করেন। 

শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহসিন কবীর বলেন, ঘটনাটি সম্পর্কে আমি জানতাম না। সূত্রাপুর থানার পুলিশের মাধ্যমে জেনেছি। থানা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে।


সর্বশেষ সংবাদ