কিউএস র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি নেই বুয়েট-ঢাবির

র‍্যাঙ্কিং
ঢাবি ও বুয়েট  © লোগো

যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডসের কোয়াকুয়ারেলি সাইমন্ডসের (কিউএস) র‍্যাঙ্কিংয়ের ফলাফলে এবারো আগের অবস্থানেই রয়েছে বাংলাদেশের দুই সেরা বিদ্যাপীঠ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) সর্বশেষ কিউএস এর বিশ্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২২ সালের র‌্যাঙ্কিংয়েও কোনো অগ্রগতিই চোখে পড়েনি। গত বছরের মতো এ বছরও বিশ্ববিদ্যালয় দু'টির অবস্থান ৮০১ থেকে ১০০০ র‍্যাঙ্কিং এর মধ্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছে।

কিউএস এর বিগত বছরগুলোর তালিকা অনুযায়ী দেখা গেছে, ২০১২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ৬০১তম, কিন্তু ২০১৪ সালে এই অবস্থান ৭০১ এ নেমে যায় আর ২০১৯ সালে সংখ্যাটি আরও পিছিয়েছে। এদিকে নর্থ সাউথ ও ব্রাক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হওয়া সত্ত্বেও ২০২২ সালের তালিকায় অবস্থান ১০০১ থেকে ১২০০ এর মধ্যে রয়েছে।

প্রতিষ্ঠানের খ্যাতি, শিক্ষক-শিক্ষার্থী সংখ্যার অনুপাত, শিক্ষক প্রতি শংসাপত্র, নিয়োগকর্তার খ্যাতি, আন্তির্জাতিক অনুষদের অনুপাত এবং আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের অনুপাতসহ এই ৬টি বিষয়ের ভিত্তিতে কিউএস র‍্যাঙ্কিং ভিত্তি করা হয়ে থাকে।

প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে ভারতের ৮টি ও পাকিস্তানের ৩টি ইনস্টিটিউট র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ৫০০-তে স্থান অর্জন করেছে।

কিউএসের প্রকাশিত সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকাকে বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য র‍্যাঙ্কিংগুলোর একটি মনে করা হয়। প্রতিবছরের এই সময়ে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‍্যাঙ্কিংস প্রকাশ করে কিউএস। 

এদিকে, গতকাল মঙ্গলবার সংস্থাটির ওয়েবসাইটে ‘কিউএস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‍্যাঙ্কিংস ২০২২’ শীর্ষক বিশ্বসেরা ১ হাজার ৩০০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ