রাবি ভর্তির প্রাথমিক আবেদন শুরু আজ

রাবি ভর্তির প্রাথমিক আবেদন শুরু আজ
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়  © ফাইল ফটো

আজ রবিবার (৭ মার্চ) থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। দুপুর ১২টা থেকে শিক্ষার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। আগামী ১৮ মার্চ পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

ভর্তির জন্য অনলাইনে প্রাথমিক আবেদন ১৮ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত গ্রহণ করা হবে। প্রাথমিক আবেদন বাছাই শেষে ২৩ মার্চ বেলা ১২টা থেকে ৩১ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত চূড়ান্ত আবেদন করা যাবে। চলতি বছরের ১৪ জুন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে গত মাসের ৯ ফেব্রুয়ারি দুপুরে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরুর তারিখ ঘোষণা করা হয়। ওইদিন ভর্তি পরীক্ষার তারিখ না জানালেও গত ১ মার্চ ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করে রাবি প্রশাসন।

এবার উচ্চ মাধ্যমিকে পাসের হার বিবেচনায় প্রতি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীর আবেদন সংখ্যা ৪৫ হাজার নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনটি ইউনিটে (এ, বি ও সি) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিদিন প্রতি ইউনিটে তিন শিফটে— সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টা, দুপুর ১২ থেকে ১টা ও বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত পরীক্ষা নেওয়া হবে। প্রতি শিফটে ১৫ হাজার ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে পারবেন। শুধুমাত্র ২০২০ সালের এইচএসসি ও সমমান ও ‘এ’ লেভেল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরাই ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

মানবিক শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র এ ইউনিটে আবেদন করতে পারবেন। এই ইউনিটে কলা, আইন, সামাজিক বিজ্ঞান ও চারুকলা অনুষদের ২৭টি বিভাগ এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট রয়েছে। আবেদনের জন্য এসএসসি, এইচএসসি ও সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৭.০০ থাকতে হবে।

বাণিজ্য শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র বি ইউনিটে আবেদন করতে পারবেন। এই ইউনিটের আওতায় বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের সাতটি বিভাগ ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট রয়েছে। আবেদনের জন্য এসএসসি, এইচএসসি ও সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৭.৫০ থাকতে হবে।

বিজ্ঞান শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র সি ইউনিটে আবেদন করতে পারবেন। এই ইউনিটের আওতায় বিজ্ঞান, কৃষি, প্রকৌশল, জীববিজ্ঞান, ভূবিজ্ঞান, ফিশারিজ এবং ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সেস অনুষদের ২৬টি বিভাগ আছে। আবেদনের জন্য এসএসসি, এইচএসসি ও সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৮.০০ থাকতে হবে।

সব ইউনিটের জন্য জিসিই ‘ও’ লেভেল পরীক্ষায় পাঁচটি বিষয়ে এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষায় অন্তত দুটি বিষয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে এবং উভয় পরীক্ষায় মোট সাতটি বিষয়ের মধ্যে চারটি বিষয়ে কমপক্ষে ‘বি’ গ্রেড এবং তিনটি বিষয়ে কমপক্ষে ‘সি’ গ্রেড থাকতে হবে।

এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এতে পাঁচটি ভুল উত্তরের জন্য এক নম্বর কাটা যাবে। পরীক্ষায় নূন্যতম পাস নম্বর হবে ৪০। বাছাই শেষে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দেওয়া তালিকা অনুযায়ী ২৩ মার্চ দুপুর ১২টা থেকে ৩১ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা চূড়ান্ত আবেদন করতে পারবেন। প্রাথমিক আবেদনের ফি ৫৫ টাকা ও চূড়ান্ত আবেদনের ফি এক হাজার ১০০ টাকা।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ