কিউএস র‍্যাংকিংয়ে আবারও দেশসেরা ঢাবি, দ্বিতীয় বুয়েট

র‌্যাংকিং
লোগো  © ফাইল ফটো

কিউএস এশিয়া ইউনিভার্সিটি র‍্যাংকিং ২০২১-এ দেশের মধ্যে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)। আবারও দেশসেরা উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান হয়েছে ঢাবি। আর গতবারের মতো এবারও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) হয়েছে দ্বিতীয়।

আজ বুধবার (২৫ নভেম্বর) কিউএস টপ ইউনিভার্সিটিজের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক র‌্যাংকিংয়ে এ তথ্য দেখা যায়। এতে এবার ৩টি সরকারি এবং ৮টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থান পেয়েছে। গতবছর এই র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ৭টি বিশ্ববিদ্যালয় এই র‌্যাংকিংয়ে স্থান পেয়েছিল।

দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে সেরা হলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান এশিয়ার মধ্যে অনেক নিচে। এশিয়ার র‍্যাংকিংয়ে এটির অবস্থান ১৩৪তম। যেখানে বুয়েট আছে ১৯৯তম অবস্থানে। এছাড়া গতবছর কিউএস র‌্যাংকিংয়ে স্থান পাওয়া খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবারও এই তালিকায় স্থান করে নিয়েছে।

আর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে বাংলাদেশে প্রথম অবস্থানে রয়েছে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি (এনএসইউ)। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (আইইউবি) রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে। এর পরেই রয়েছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ডিআইইউ)। পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়।

এছাড়া ষষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ইউআইইউ)। সপ্তম অবস্থানে রয়েছে আহ্ছানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজি এবং অষ্টম অবস্থানে রয়েছে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, এই র‌্যাঙ্কিংয়ে বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের গবেষণা, উদ্ভাবন, চাকরিতে স্নাতকদের কর্মক্ষমতা, সামাজিক প্রভাব, এ্যাকাডেমিক খ্যাতি, অনুষদ সদস্যদের গবেষণা প্রকাশনা, পিএইচডি ডিগ্রি এবং কর্মীদের সংখ্যা দেখা হয়।

মোট পাঁচটি মানদণ্ড যাচাই করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে গৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে এই প্রতিষ্ঠান বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং প্রদান করে। পাঁচটি মানদণ্ড হচ্ছে, প্রাতিষ্ঠানিক খ্যাতি, শিক্ষক ও প্রাতিষ্ঠানিক কর্মচারীদের যোগ্যতা ও দক্ষতা, শিক্ষক-ছাত্রের অনুপাত, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিভাগীয় কৃতিত্ব তথা গবেষণা ও অন্যান্য এবং আন্তর্জাতিক পর্যালোচনা।


মন্তব্য