ঢাবি ছাত্রলীগ

জয়-লেখককে আল্টিমেটাম: অবশেষে হল কমিটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত

কমিটি
ঢাবি ও ছাত্রলীগের লোগো  © লোগো

চলতি জানুয়ারি মাসের মধ্যেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শাখা ছাত্রলীগের হল কমিটি না দিলে ধর্মঘট করে কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে অবাঞ্ছিত ঘোষণার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন বিভিন্ন হলের পদপ্রার্থীরা। গত বুধবার (১২ জানুয়ারি) রাতে দেওয়া এই আল্টিমেটামের পর অবশেষে কমিটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে আজ শনিবার (১৫ জানুয়ারি) ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি জানুয়ারির মধ্যে হল সম্মেলন করার। দলীয় ফোরামে আলোচনার মাধ্যমে দ্রুত তারিখ জানানো হবে।

আরও পড়ুন: ছাত্রলীগের হল কমিটি দিতে জয়-লেখককে আল্টিমেটাম

জানা যায়, বুধবারের আল্টিমেটামের পর গতকাল শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে আলোচনায় বসেন কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন। সভায় হল কমিটির ব্যাপারে পদপ্রত্যাশীদের হতাশা ও ক্ষোভের বিষয় তুলে ধরেন বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতারা। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় এবং কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে কে কয়টি হল নেবেন, সেটি নিয়েও আলোচনা হয়। বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনার পর জানুয়ারির মধ্যেই দিন ঠিক করে হল সম্মেলন করা হবে বলে একমত হন।

সংগঠনটির শীর্ষ এক নেতা জানান, বিশ্ববিদ্যালয় ও কেন্দ্রীয় শীর্ষ চার নেতা ছাত্রলীগের দায়িত্বে থাকা আওয়ামী লীগের চার নেতার সঙ্গে আজ সন্ধ্যায় আলোচনায় বসবেন। তাদের সঙ্গে কথা বলেই নিজেদের মধ্যে হল নির্ধারণ এবং কমিটি গঠনের নির্দিষ্ট দিন ঠিক করবেন।

হলের একাধিক পদপ্রার্থী বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮টি আবাসিক হল শাখা ছাত্রলীগের কমিটি হচ্ছে না পাঁচ বছর ধরে। দুই দফায় কমিটি গঠনের জন্য হল সম্মেলনের তারিখ ঠিক করা হলেও শেষ পর্যন্ত তা পরিণতি পায়নি। গত ডিসেম্বরে হল সম্মেলনের ঘোষণা দিয়ে শীর্ষ দুই নেতার (জয়-লেখক) সদিচ্ছার অভাবে তা হয়নি।

হল কমিটি নিয়ে শীর্ষ দুই নেতার গড়িমসির প্রতিবাদ জানিয়ে গত বুধবার রাত ১২টার দিকে রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেনস্থ লেখক ভট্টাচার্যের বাসার সামনে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান বিভিন্ন হলের পদপ্রার্থীরা। পরে জয়-লেখক তাদেরকে নিয়ে টিএসসিতে এসে কথা বলে সমাধানের আশ্বাস দেন।


মন্তব্য

x