‌‘আজকে আমার মন ভালো নেই’ লিখে শাস্তি পেতে যাচ্ছেন জবি ছাত্র!

‌‘আজকে আমার মন ভালো নেই’ লিখে শাস্তি পেতে যাচ্ছেন জবি ছাত্র!
  © সংগৃহীত

সম্প্রতি চিটাইংগে টিভি নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলের একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে প্র্যাংক কলের কথোপকথনে বারবার বলা হয়, ‘আসকে (আজকে) আমার মন ভালো নেই’। মূলত সেখান থেকেই এই ভাইরাল লাইন এর উৎপত্তি।

এদিকে, ভাইরাল এই লাইনটি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) এক শিক্ষার্থী মিডটার্মের খাতায় লিখে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করায় শাস্তির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে। অভিযুক্ত ওই শিক্ষার্থী জবির ইংরেজি বিভাগের (২০২০-২০২১) শিক্ষাবর্ষে অধ্যয়নরত।

জানা যায়, মিডটার্ম পরীক্ষার অতিরিক্ত একটি উত্তরপত্র নিয়ে যান ওই শিক্ষার্থী। পরে বুধবার (২২ জুন) রাতে সেই উত্তরপত্রে "আজকে আমার মন ভালো নেই "লিখে নিজের ফেসবুক আইডিতে পোস্ট দেন তিনি। তারপর বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের সব জায়গায় ভাইরাল হয়ে যায়। পরে ওই শিক্ষার্থী পোস্টটি ডিলিট দিয়ে দেন। 

এ বিষয়ে ওই শিক্ষার্থী বলেন, তিনি এ নিয়ে তার টাইমলাইনে ফানি পোস্ট দিয়েছেন। পরে বুঝতে পেরে তিনি পোস্টটি ডিলিট দিয়ে দেন। তিনি বুঝতে পারেননি বিষয়টি এরকম ভাইরাল হয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, ইনভিজিলেটর এর স্বাক্ষর তিনি করেছেন। 

এ বিষয়ে ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মমিন উদ্দীন বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমরা পরিষ্কারভাবে এখনো কিছু জানি না। ওই শিক্ষার্থীকে আগামী রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে দেখা করতে বলা হয়েছে। তখন আমরা বিষয়টি সম্পর্কে সম্পূর্ণভাবে জেনে পরবর্তী পদক্ষেপ নিবো। ভাইরাল হওয়া অতিরিক্ত উত্তরপত্রে ইনভিজিলেটর স্বাক্ষরটি ইংরেজি বিভাগের কোনো শিক্ষকের নয় বলে জানিয়েছেন বিভাগের চেয়ারম্যান। 

বিষয়টি গুরুতর অপরাধ হলে ঐ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা বহিষ্কার করতে পারিনা। এটা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে। তবে আমরা বিষয়টি নিয়ে রবিবার ঐ শিক্ষার্থীর সাথে কথা বলে সিদ্ধান্ত দিবো।  

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি এখনো কিছু জানি না। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এ কে এম আক্তারুজ্জামান বলেন, বিষয়টি নিয়ে বিভাগ যা বলবে তা। তাছাড়া উত্তরপত্রটি আমি দেখিনি। তাই এবিষয়ে কিছু বলা যাচ্ছে না।


x