ইউপি সদস্যের ওপর হামলা-ভাঙচুর

ব‌বি ছাত্রীর স্বামীকে আসামি করে মামলা, নাম নেই কোনো শিক্ষার্থীর

ব‌বি ছাত্রীর স্বামীকে আসামি করে মামলা, নাম নেই কোনো শিক্ষার্থীর
  © ফাইল ছবি

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) সংলগ্ন আনন্দ বাজারে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য সাইদুল আলম লিটনের ওপর হামলা ও বসতবাড়িতে ভাঙচুরের ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে মামলায় বিশ্ববিদ্যালয়টির কোনো শিক্ষার্থীর নাম উল্লেখ করা হয়‌নি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে বরিশাল মেট্রোপলিটন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে মামলাটি দায়ের করেন ইউপি সদস্য লিটনের স্ত্রী লুৎফর নাহার কাজল।

আরও পড়ুন: স্বামীসহ ববি ছাত্রীকে মারধর, সেই বখাটে গ্রেপ্তার

মামলার এজহারে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার রাতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের ছাত্রী ও তার স্বামী সোহাগ হাসানকে মারধরের অভিযোগ ওঠে বরিশাল সদর উপজেলার চরকাউয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সাইদুল আলম লিটন ও স্থানীয় যুবক জাহিদ হোসেন জয়সহ তাদের সহযোগিদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা লিটন ও জয়ের ঘর বাড়িতে ভাঙচুর চালায়।

লিটনের স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় ওই ছাত্রীর স্বামী সোহাগ হাসানসহ অজ্ঞাত ৪০ জনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করা হয়।

আরও পড়ুন: স্বামীসহ ববি ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি: ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

মামলাটি আমলে নিয়ে আদালতের বিচারক আল ফয়সাল আগামী ১০ দিনের মধ্যে বন্দর থানার ওসিকে এজাহার গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার এজাহারে বাদী উল্লেখ করেছেন, আসামি সোহাগ হাসানের নামে ঝালকাঠি ও বন্দর থানায় একাধিক অভিযোগ রয়েছে। আসামিকে কেউ অন্যায় কাজে বাঁধা দিলে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানি করে। মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় যুবক জয়কে সোহাগ তার দলীয় লোকজন নিয়ে বেধরক মারধর করে।

বাদীর স্বামী ইউপি সদস্য লিটন সোহাগকে বাঁধা দিতে গেলে আসামি সোহাগ তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে লিটনের মাথায় আঘাত করে। লিটন জীবন বাঁচাতে নিজের বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিলে সোহাগ তার দল বল নিয়ে লিটনের বসত বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়ে পাঁচ লাখ টাকার ক্ষতি করে।

সোহাগ বাদীর আলমিরা ভেঙে নগদ দুই লাখ টাকা চুরি করে নেয় বলেও মামলায় উল্লেখ আছে। এছাড়া ৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কারও নিয়ে যার বলে অভিযোগ বাদীর।


মন্তব্য

x