খুবিতে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন শাবিপ্রবি

খুবিতে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন শাবিপ্রবি
চ্যাম্পিয়ন দল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির সদস্যরা  © সংগৃহীত

'যুক্তির দৃপ্ততায় আঁকি নিজস্ব অবস্থান' এই স্লোগানে তিন দিনব্যাপী জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) একমাত্র বিতর্ক সংগঠন ‘নৈয়ায়িক’। প্রতিযোগিতায় খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটিকে হারিয়ে বিজয়ী হয় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি।

গতকাল রোববার রাত দশটায় এক ওয়েবিনার লাইভে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা এ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন।

দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬টি দল প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। চূড়ান্ত পর্বের বিতর্কের বিষয় ছিল ‘এই সংসদ (বাংলাদেশ), করোনা ভ্যাকসিন আমদানি এবং বিতরণের দায়িত্ব বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছে ন্যস্ত করবে।’ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (এসইউডিএস ৫২) ও খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট অদ্বৈত) মধ্যে চূড়ান্ত বিতর্ক হয়। প্রস্তাবনার বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি দল ৪-২ ব্যালটে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

ফাইনালের শ্রেষ্ঠ বিতার্কিক নির্বাচিত হন বিপক্ষ দলের (এসিইউডিএস ৫২) দলনেতা মেহেরাব সাহাদাত। প্রতিযোগিতার সেরা বিতার্কিক হন কুয়েট অদ্বৈত দলের বিতার্কিক মো. ফয়সাল। এ ছাড়াও শ্রেষ্ঠ তিন বিচারক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন অর্পিতা কুন্ড, তাওহিদ আলিফ, তানভীর আহমেদ।

আয়োজনের শেষ দিন ফলাফল ঘোষণা অনুষ্ঠানে সৌমিক রহমান তালুকদারের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি অসিত কুমার দত্ত।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা বলেন, 'নৈয়ায়িক খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবের জায়গা। ২০০১ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত একটানা তাদের এই পথচলা গর্বের বিষয়। বিতর্কের মাধ্যমে সংগঠনটি জ্ঞান চর্চা ও প্রয়োগের ক্ষেত্রে কাজ করে যাচ্ছে। তাদের এমন আয়োজন ভবিষ্যতে অব্যাহত থাকুক।'

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রবিষয়ক পরিচালক মো. শরীফ হাসান লিমন, নৈয়ায়িকের প্রধান উপদেষ্টা ড. মো. মনিরুল ইসলাম এবং প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জাকির হাসানাত।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ