৪৩তম বিসিএস আবেদনের যোগ্যতায় সংশোধনী এনেছে পিএসসি

৪৩তম বিসিএস আবেদনের যোগ্যতায় সংশোধনী এনেছে পিএসসি
  © ফাইল ছবি

৪৩তম বিসিএসের আবেদনের সময়সীমা পিছিয়েছে আরো তিন মাস। সেই সাথে এই বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সময়ও পেছানো হয়েছে। সোমবার (২৯ মার্চ) বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের (পিএসসি) এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী ১৫ অক্টোবর শুক্রবার সকাল ১০টা হতে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এই বিসিএসের আবেদনপত্র জমাদানের শেষ তারিখ ৩১ মার্চ সন্ধ্যা ৬টার এর পরিবর্তে ৩০ জুন সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পুন:নির্ধারণ করা হয়েছে।

এদিকে, ৪৩তম বিসিএসের আবেদনের যোগ্যতায় সংশোধনী এনেছে সরকারী কর্ম কমিশন (পিএসসি)। সংশোধনী অনুযায়ী, স্নাতকের পরীক্ষার ফল প্রকাশিত না হলেও অ্যাপয়োর্ড হিসেবে ৪৩তম বিসিএসে আবেদন করা যাবে। তবে তা সাময়িকভাবে গ্রহণ করা হবে।

৪৩তম বিসিএসের সংশোধিত নির্দেশনাটি হলো: যদি কোনো প্রার্থী এমন কোনো পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়ে থাকেন যে পরীক্ষায় পাস করলে তিনি ৪৩তম বিসিএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যোগ্যতা অর্জন করেন এবং যদি তার ওই পরীক্ষার ফলাফল ৪৩তম বিসিএস পরীক্ষার আবেদনপত্র দাখিলের শেষ তারিখ পর্যন্ত প্রকাশিত না হয় তাহলেও তিনি অবতীর্ণ প্রার্থী (অ্যাপয়োর্ড) হিসেবে অনলাইনে আবেদনপত্র দাখিল করতে পারবেন। তবে তা সাময়িকভাবে গ্রহণ করা হবে। কেবল সেই প্রার্থীকেই অবতীর্ণ প্রার্থী (অ্যাপয়োর্ড) হিসেবে বিবেচনা করা হবে যার স্নাতক বা স্নাতকোত্তর সকল লিখিত পরীক্ষা আবেদন গ্রহণের শেষ তারিখ অর্থাৎ আগামী ৩০ জুনের মধ্যে সম্পূর্ণরূপে শেষ হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৪৩তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আগামী ১৫ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে একযাগে অনুষ্ঠিত হবে।

পরীক্ষার হল, আসন ব্যবস্থা এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত বিস্তারিত নির্দেশাবলি যথাসময়ে সংবাদ মাধ্যম ও কমিশনের ওয়েবসাইটে (www.bpsc gov.bd) প্রকাশ করা হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ