বিসিএসের প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেন্দ্রে পৌঁছেছে: পিএসসির সদস্য

পিএসসি
সরকারি কর্ম কমিশন  © ফাইল ফটো

করোনার সংক্রমণ ফের বাড়তে থাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো পুনরায় না খুলতে এবং পাবলিক পরীক্ষা না নিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পরামর্শ দিয়েছে সরকারকে। গত মঙ্গলবার সম্পূর্ণ লকডাউন দেওয়ার প্রস্তাবও করেছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। এরপরই ৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। তবে আগামীকাল শুক্রবার (১৯ মার্চ) এ পরীক্ষা নেওয়ার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। 

আগামীকাল শুক্রবার ৪১তম বিসিএস পরীক্ষা অনুষ্ঠানের ব্যাপারে পিএসসির সদস্য শাহজাহান আলী মোল্লা বুধবার (১৭ মার্চ) রাতে গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘পরীক্ষার মাত্র একদিন বাকি। পরীক্ষার কেন্দ্রগুলোতে প্রশ্নপত্র ও প্রয়োজনীয় অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী পাঠিয়ে দিয়েছি। বিভাগীয় শহরগুলোতে পরীক্ষার্থীরা চলে এসেছেন। পরীক্ষা এখন বন্ধ করা কঠিন।’

প্রসঙ্গত, গত ১৩ জানুয়ারি ৪১তম বিসিএসের তারিখ ঘোষণা করে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। ঘোষণা অনুযায়ী, আগামীকাল ১৯ মার্চ এই বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিভিন্ন ক্যাডারে দুই হাজার ১৬৬ শূন্যপদে প্রার্থী নিয়োগ দিতে ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় ২০১৯ সালে নভেম্বরে।

এদিকে করোনা পরিস্থিতি লকডাউনসহ অন্যান্য প্রস্তাবের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশিদ আলম বলেছেন, ‘আমরা আলোচনার জন্যে বিষয়গুলো বৈঠকে উপস্থাপন করেছি। আমরা আলোচনা করেছি, সিদ্ধান্ত নেবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। সবাই যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে, সে বিষয়ে জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে আমাদের।’


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ