বিসিএস নিয়োগ না হওয়ায় মানুষ সেবাবঞ্চিত হচ্ছে: পিএসসি সদস্য

পিএসসি
সরকারি কর্ম কমিশন  © ফাইল ফটো

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষা নিয়ে বিতর্ক প্রসঙ্গে সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সদস্য শাহজাহান আলী মোল্লা বলেছেন, ‘এখন করোনা বাড়ছে, সামনে যে কমবে তা তো বলা যায় না। একটি দেশ তো এভাবে স্থবির হয়ে থাকতে পারে না। এখন তো সব কিছুই খোলা। তাহলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা কেন নেয়া যাবে না।’ ডয়েচে ভেলেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেছেন।

শাহজাহান আলী মোল্লা জানান, বিসিএস পরীক্ষায় একটি জট তৈরি হচ্ছে। ৪২তম বিসিএস পরীক্ষা তো গত বছর হওয়ার কথা ছিলো। ৪৩তম বিসিএস এখনও পেন্ডিং আছে। চাকরিপ্রার্থীদের বয়স বেড়ে যাচ্ছে। শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা বাড়ছে। আর যে পদগুলো খালি আছে নিয়োগ দিতে না পারায় তাদের সেবা থেকে দেশের মানুষ বঞ্চিত হচেছ। তাই সব মিলিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘এবার পরীক্ষার হলে চিকিৎসকও থাকবেন। আর তাপমাত্রা মেপে বা অন্যভাবে কাউকে কোভিড আক্রান্ত সন্দেহ হলে তাদের সিক বেডে পরীক্ষার সুযোগ দেয়া হবে। আইসোলেশন প্রয়োজন হলে তার ব্যবস্থা করা হবে। সিক বেড এমনিতেই থাকে৷ অন্য কোনো কারণেও কেউ অসুস্থ হতে পারেন।’

প্রসঙ্গত, গত ১৩ জানুয়ারি ৪১তম বিসিএসের তারিখ ঘোষণা করে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। ঘোষণা অনুযায়ী, আগামীকাল শুক্রবার (১৯ মার্চ) এই বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিভিন্ন ক্যাডারে দুই হাজার ১৬৬ শূন্যপদে প্রার্থী নিয়োগ দিতে ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় ২০১৯ সালে নভেম্বরে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ