স্কুলে ক্লাস করছে রোবট, শিক্ষার্থী বাসায়

রোবট
ক্লাস করছেন রোবট  © রয়টার্স

দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ সাত বছর বয়সী জোশুয়া মার্টিনানগেলি। অসুস্থতার কারণে স্কুলে যেতে পারছে না সে। নিজে যেতে না পারলেও ক্লাস করতে পাঠিয়েছেন রোবটকে। ওই রোবটের মাধ্যমেই চলছে পড়ালেখা। এমনকি বন্ধুদের সাথে আড্ডাও হচ্ছে রোবটের মাধ্যমেই।

ঘটনাটি শুনতে কাল্পনিক মনে হলেও এমনই ঘটনা ঘটেছে জার্মানির বার্লিনের পুসতেব্লুমে গ্রান্ডস্কুলে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বার্লিনের পুসতেব্লুমে গ্রান্ডস্কুলে ক্লাস করছে রোবটটি। জোশুয়ার কিছু বলার প্রয়োজন হলে সংকেত দেয় রোবটটি। ক্লাস চলাকালীন জোশুয়ার শিশু বন্ধুরা রোবটটির মাধ্যমে জোশুয়ার সাথে কথা বলে, তারা হাসাহসি করে।

আরও পড়ুন: হিউম্যান রাইটস ওয়াচের বিবৃতি একপেশে: তথ্যমন্ত্রী

জোশুয়ার মা সিমন মার্টিনানগেলি জানান, আমার ছেলে দীর্ঘদিন ধরে ফুসফুসের জটিল রোগে আক্রান্ত। এ কারণে তার গলায় একটি টিউব পরতে হয়। ফলে তার স্কুলে যাওয়া সম্ভব হয় না। সেজন্য আমরা এমন ব্যবস্থা করেছি।

জানা গেছে, এমন রোবট তৈরি করেছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। আর এই কাজে অর্থ ব্যয় করেছে বার্লিনের মারজান-হেলারসডর্ফ জেলার স্থানীয় কাউন্সিল।

আরও পড়ুন: প্রতারক স্বামীকে তালাক দিলেন ঢাবি ছাত্রী

জেলার শিক্ষা কাউন্সিলর টরস্টেন খিনি বলেন, বার্লিনের একমাত্র জেলা হিসেবে আমরাই সর্বপ্রথম এমন রোবট এনেছি। এর মূল কারণ ছিল করোনাভাইরাস। তবে আমার মতে মহামারির বাইরে গিয়ে এটিই হবে ভবিষ্যৎ।

এই শিক্ষা কর্মকর্তা আরও বলেন, বিভিন্ন সময়ে দেখা যায়, নানা কারণে একটি শিশু সশরীরে স্কুলে যেতে পারছে না। এমন পরিস্থিতিতে স্কুলের সঙ্গে যুক্ত থাকার সুযোগ করে দিতে পারে এই রোবট।


মন্তব্য

x