যুক্তরাষ্ট্রে একজনকেই প্রায় ৪ কোটি টাকার শিক্ষাঋণ মওকুফ!

যুক্তরাষ্ট্রে একজনকেই প্রায় ৪ কোটি টাকার শিক্ষাঋণ মওকুফ!
চিকিৎসক সেথ কোয়্যোট   © সংগৃহীত

মেডিকেলের গ্রাজুয়েশন শেষ করা একজনকেই চার লাখ ৪০ হাজার ৪৬৫ মার্কিন ডলারের বেশি অর্থাৎ বাংলাদেশি মুদ্রায় তিন কোটি ৭২ লাখ ৯৯ হাজার টাকার শিক্ষাঋণের ৯৮.৯ শতাংশ মওকুফের রায় দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের দেওলিয়া বিষয়ক আদালত। ইয়াহু ফাইন্যান্স নিউজ এ কথা জানিয়েছে।

থাইল্যান্ডের কম্বোডিয়া শরণার্থী শিবিরে জন্ম নেওয়া সেথ কোয়্যোট চিকিৎসক হওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। অদম্য প্রতিভা আর মেধার জোরে মেডিকেলে পড়াশোনা করেন। কিন্তু মেডিকেল স্কুলের ফির বাকির পাহাড় জমে যায়।

পড়াশোনা শেষ করে নিবন্ধিত চিকিৎসক হিসেবে কাজ করেও পর্যাপ্ত আয় করতে না পেরে ভিন্ন পেশার কাজও করেন। কিন্তু না পেরে ২০১২ সালে প্রথম ঋণ মওকুফের আবেদন করেন সেথ কোয়্যোট। ২০১৫ সালে নিজেকে দেওলিয়া ঘোষণা করেন তিনি। সেসময় শিক্ষা বিভাগ বলে, পেশাগত কাজে যথেষ্ট জোর দিচ্ছেন না সেথ কোয়্যোট। পরবর্তীতে তাকে অলস হিসেবেও আখ্যা দেওয়া হয়।

নাছোড়বান্দা সেথ কোয়্যোট ২০১৮ সালে আপিল বিভাগের শরণাপন্ন হন। পাঁচ হাজার ডলারের সম্পত্তিও নেই তার। চার লাখ ৪০ হাজার ডলারের ঋণ শোধ দেবেন কী করে।

মহামারি করোনাভাইরাসের ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলমান ঋণ মওকুফের ধারায় মাফ পেতে চলেছেন সেথ কোয়্যোটও। আপিল আদালত বলেছেন, শূন্য দশমিক এক শতাংশ সুদে মোট ঋণের মাত্র ১.১ শতাংশ পরিশোধ করতে হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ