মৃত্যু জেনেও শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত বুকে আঁকড়ে রেখেছিলেন সন্তানদের

সন্তান
বেঁচে যাওয়া শাহীনুরের দুই জমজ সন্তান  © ফাইল ফটো

চট্টগ্রামের আকবর শাহ থানাধীন বরিশালঘোনায় পাহাড় ধসে শাহীনুর বেগম (৩০)  নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যু নিশ্চিত জেনেও শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত নিজের ছয়মাস বয়সী দুই জমজ সন্তানকে বুকে আগলে রেখেছিলেন। এতে প্রাণে বেঁচে গিয়েছে তার সন্তানেরা। তবে বাঁচতে পারেননি কোহিনুর বেগম।

বেঁচে যাওয়া দুই সন্তানের নাম তাসকিয়া ইসলাম তানহা ও তাকিয়া ইসলাম তিন্নি। ঘটনার দিন রাতে শাহীনুরের বড় ছেলে তরিকুল ইসলাম তানিম খালার বাসায় থাকায় তিনি বেঁচে গেছেন।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, শুক্রবার দিনগত রাতে পাহাড় ধসে মাটির নিচে চাপা পড়েন শাহীনুর বেগম ও তার ছোট বোন মাহিনুর (২০)। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নেয়ার পথেই প্রাণ হারান কোহিনুর।

উদ্ধার কাজে অংশ নেওয়া মো. আশিক নামে এক ব্যক্তি জানান, আমরা যখন শাহীনুর বেগমকে উদ্ধার করতে যাই তখন তার একটি পা আটকে গিয়েছিল। সেখান থেকে কোনো ভাবে তাকে বের করা হয়। বের করার সময় তার নিঃশ্বাস সচল ছিল। এসময় তার সন্তানরা কোলে ঘুমাচ্ছিলেন।

আরেক উদ্ধারকারী জাহাঙ্গীর আলম জানান, শাহীনুরের শশুরবাড়ি মিরসরাইয়ে। তিনি সন্তানসম্ভাবা হওয়ায় মায়ের বাড়িতে এসেছিলেন। পরবর্তীতে একটি হাসপাতালে জমজ সন্তানের জন্ম দেন। প্রসব পরবর্তী সেবাযত্নের জন্য মায়ের বাড়িতে ছিলেন। এছাড়া তার সন্তানদের টিকা দেওয়ায় বাকি ছিল। শিগগিরই তার শশুরবাড়িতে ফেরার কথা ছিল। সন্তানদের টিকাও দিয়েছিলেন তিনি। তবে তার আর ফেরা হলো না।


x