আজ পবিত্র হজ, লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত আরাফাত ময়দান

আজ পবিত্র হজ, লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত আরাফাত ময়দান
আজ পবিত্র হজ, লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখরিত আরাফাত ময়দান  © সংগৃহীত

করোনাকালে দ্বিতীয় বছরের মতো সীমিত পরিসরে হজ পালিত হচ্ছে। সৌদি আরবে আজ জিলহজ মাসের ৯ তারিখ। এ দিনকে বলা হয় আরাফার দিন। হাজিরা মিনায় ফজরের নামাজ আদায়ের পর নিয়ম অনুযায়ী আরাফাতের ময়দানের উদ্দেশে রওয়ানা দেন।

‘লাব্বাইকা আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লাব্বাইকা লা শরীকা লাকা লাব্বাইক।’ হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লির কণ্ঠে এ ধ্বনিতে মুখরিত হচ্ছে আরাফাত ময়দান। আরাফাতের বিশাল প্রান্তরে অবস্থান করে মসজিদে নামিরাহ থেকে প্রদত্ত খুতবা শুনবেন। যা বাংলাসহ ৯টি ভাষায় অনুবাদ করে প্রচার করা হবে। সূর্যাস্তের পর আরাফাতের ময়দান ত্যাগ করবেন হাজিরা।

গত শনিবার (১৭ জুলাই) থেকে হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। গতবারের মতো এবারও করোনার মহামারির মধ্যে সীমিত পরিসরে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে হজ পালন করা হচ্ছে।

সোমবার (১৯ জুলাই) সকালে মিনা থেকে ৩ হাজার বাসে করে হজযাত্রীদের আরাফার ময়দানে সুশৃঙ্খলভাবে পৌঁছানো হয়েছে। হজযাত্রীরা আরাফার ময়দানে সূর্যাস্ত পর্যন্ত অবস্থান করে আল্লাহর কাছে মোনাজাতের মাধ্যমে জীবনের সব গুনাহ মাফ করার জন্য প্রার্থনা করবেন।

মসজিদুল হারাম থেকে প্রায় ২২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ঐতিহাসিক এই আরাফাতের ময়দান। ১৪০০ বছর আগে এই ময়দানেই মোহাম্মদ (সা.) লক্ষাধিক সাহাবিকে সামনে রেখে ঐতিহাসিক বিদায়হজের ভাষণ দিয়েছিলেন।

ইসলাম ধর্মের পাঁচটি স্তম্ভের মধ্যে একটি হচ্ছে হজ। আর্থিকভাবে সামর্থ্যবান মুসলিমকে অবশ্যই অন্তত একবার হজ পালন করতে হবে। বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম ধর্মীয় এই অনুষ্ঠানে প্রতি বছরই লাখ লাখ মুসল্লি জড়ো হন। এর আগে ২০১৯ সালে প্রায় ২৫ লাখ মানুষ হজে অংশ নিয়েছিলেন। তবে করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট মহামারির কারণে গত বছর থেকেই এই চিত্র অনেকটা বদলে গেছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ