মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেননি ৬ হাজার শিক্ষার্থী

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেননি ৬ হাজার শিক্ষার্থী
  © ফাইল ফটো

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২ এপ্রিল) সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তবে আবেদন করেও এ পরীক্ষায় ৬ হাজার ১৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেননি।

পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর এদিন সন্ধ্যায় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সদস্য সচিব ও স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. একেএম আহসান হাবিব স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে। এতে প্রত্যেক পরীক্ষার্থীসহ পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক ছিল।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সারাদেশে ১ লাখ ২২ হাজার ৮৭৪ জন আবেদনকারীর মধ্যে ১ লাখ ১৬ হাজার ৮৫৬ জন ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। এ হিসাবে আরও ৬ হাজার ১৮ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেননি। এ পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে ২৬.৮৬ জন অংশগ্রহণ করেন।

উপরিউক্ত পরীক্ষা সফলভাবে অনুষ্ঠানে যারা সক্রিয় সহযােগিতা করেছেন বিশেষ করে জেলা প্রশাসক, জেলা প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ, বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন শাখা, র্যাব, ডিজিএফআই, এনএসআই, আনসার, বিদ্যুৎ বিভাগ, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দসহ সবাইকে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য দেশের বিভিন্ন মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ও শিক্ষকমন্ডলী নিরলস পরিশ্রম করেছেন। স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ, জেলার সিভিল সার্জন, বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকগণ ও চিকিৎসকগণ সক্রিয় ভূমিকা রাখেন।

সর্বোপরি পরীক্ষা সফলভাবে অনুষ্ঠানে কোমলমতি পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আন্তরিক সহযােগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের মাধ্যমে মেধাবী শিক্ষার্থীবৃন্দের চিকিৎসা সেবায় অংশগ্রহণ নিশ্চিত হবে এবং জাতীয় স্বার্থে স্বাস্থ্য সেবায় ধারাবাহিকভাবে ভবিষ্যতের এই চিকিৎসকবৃন্দ অংশগ্রহণ করবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ