আখের রসের স্বাস্থ্য উপকারিতা

টিপস
আখের রস একটি মিষ্টি ও চিনিযুক্ত পানীয়  © প্রতীকী ছবি

আখের রস একটি মিষ্টি ও চিনিযুক্ত পানীয়। যা ভারত, আফ্রিকা এবং এশিয়ার কিছু অংশে বেশ জনপ্রিয়। এতে প্রচুর পরিমাণে থাকা এন্টিঅক্সিডেন্ট ও টক্সিন নির্মূলকারী উপাদান দেহের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এমনকি আখে থাকা ফাইবার ও মাইক্রো-মিনারেলস দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এছাড়া মিষ্টি হওয়া সত্ত্বেও এতে ফ্যাটের পরিমাণ না থাকাই ওজন বাড়ার কোন সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। 

জানা যায়, আখ বেশ কিছু পুষ্টি উপাদানসহ প্রচুর পরিমাণে চিনি এবং শর্করা থাকে। ১কাপ (২৪০ মি.গ্রাম) আখের রসে রয়েছে ক্যালোরি ১৮৩, চিনি ৫০ গ্রাম ও ফাইবার ১৩ গ্রাম। তবে এসে কোন ধরণের চর্বি থাকে না।

আরও পড়ুন: দৈহিক সুস্থতা ও সৌন্দর্য বর্ধনে শসার উপকারিতা

আখ রস ক্লান্ত দেহে শক্তি যোগানোর পাশাপাশি দেহকে শিথিল রাখে। এমনকি জন্ডিস, রক্তাল্পতা, গ্যাস্ট্রিক ও অম্বল জাতীয় রোগে খুবই কাজে দেয় আখের রস। এ পর্যায়ে আখের রসের বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকারিতা তুলে ধরা হলো-

হার্ট ভালো রাখে

আখের রসে চিনির পরিমান বেশি থাকলেও এতে চর্বির কোন উপাদান নেই। এমনকি এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে যা ওজন কমাতে সহায়তা করে। এছাড়া দেহের বিপজ্জনক কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতেও সহায়তা করে।

লিভারের সুস্থতায়

আখের রস লিভারের জন্য খুবই উপকারী। কারণ এটি লিভারকে সুস্থ রাখার পাশাপাশি সঠিকভাবে কাজ করতে সহায়তা করে। তাই কোনো ব্যক্তি জন্ডিসে আক্রান্ত হলে তাকে আখের রস দেওয়া উচিত। এতে দ্রুত সুস্থতা মিলে।

দেহের টক্সিন নির্মূলে

আখের রস দেহ থেকে টক্সিন নির্মূল করতে সহায়তা করে। এছাড়া বিভিন্ন ব্রণ দূর করতেও বেশ কার্যকারী ভূমিকা রাখে। কেননা আখের রসে থাকা উচ্চ মাত্রার সুক্রোজ দেহের ক্ষত সারাতে সাহায্য করে। ফলে মুখের দাগ দূর হয়।

আরও পড়ুন: আমের প্রাকৃতিক স্বাস্থ্য উপকারিতা

হাড় শক্তিশালী করে

হাড়ের গঠন ও শক্তিশালী করতে আখের রস অনেক উপকারী। কেননা এ রসে থাকা ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, আয়রন এবং পটাশিয়াম হাড় গঠনের পাশাপাশি তা স্বাস্থ্য রাখে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি 

আখের রস পান করলে শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। শরীর শক্তিশালী প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে পারে ফলে অনেক ধরনের অসুস্থতা থেকে শরীর রক্ষা পায়।

ত্বককে উজ্জ্বল রাখে

ত্বকের উজ্জ্বলতায় আখের রসের জুড়ি নেই। গ্রীষ্মকালের কড়া রোদ ও ঘামের ফলে ত্বকের উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু আখের রস ত্বককে সুস্থ রাখার পাশাপাশি বিভিন্ন দাগ দূর করে উজ্জ্বল রাখে। 

কিডনি সুরক্ষায়

কিডনি সুস্থ্য রাখতে আখের রস বেশ কার্যকরী। কেননা কিডনি ফাংশনকে ঠিক রাখতে এ রস সহায়তা করে।গবেষণায় দেখা গেছে, আখের রসে উপস্থিত একাধিক উপকারি উপাদান ইউরিনারি ট্রাক্ট ইনফেকশন সারানোর পাশাপাশি কিডনি স্টোনের মতো সমস্যা দূর কাজ করে।

আরও পড়ুন: গরমে দেহ ও মনকে সতেজ রাখবে তরমুজ

বিখ্যাত পুষ্টিবিদ রুজুতা দিওয়েকর প্রাকৃতিক ডিটক্সের জন্য সপ্তাহে অন্তত তিনবার আখের রস খাওয়ার পরামর্শ দেন। তার মতে, আখের রস অন্ত্র পরিষ্কার করতে সাহায়তা করার পাশাপাশি মেটাবলিজম বাড়িয়ে অবশেষে ওজন কমাতে সাহায্য করে। এমনকি টক্সিন বের করার পাশাপাশি দেহকে করে শীতল। তাছাড়া পিরিয়ডের দ্বিতীয় দিনে স্বভাবতই প্রচুর রক্তপাত হয়। তাই পিরিয়ডের এক সপ্তাহ আগে আখের রস পান করলে এমন অবস্থা থেকে অনেকটা মুক্তি মিলে।


x

সর্বশেষ সংবাদ