কলেজ মাঠ নাকি ময়লার ভাগাড়

কলেজ মাঠ নাকি ময়লার ভাগাড়
টঙ্গী কলেজ ও সফিউদ্দিন সরকার একাডেমি অ্যান্ড কলেজের সামনের দৃশ্য  © সংগৃহীত

কলেজের মাঠে কয়েকজন শিশু-কিশোর খেলাধুলা করছেন। মাঠের পাশ দিয়ে হেটে যাচ্ছেন পথচারীরা। কিন্তু সবাই নাক চেপে ধরে চলচল করছেন। কেননা ওই কলেজ মাঠে ময়লা ফেলায় তা এখন ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। বাতাসে ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ।

এটি হচ্ছে টঙ্গী সরকারি কলেজ ও সফিউদ্দিন সরকার একাডেমি অ্যান্ড কলেজের সামনের দৃশ্য। মাঠের পূর্ব পাশে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক। ময়লার ভাগাড়টি করা হয়েছে মাঠের উত্তর-পূর্ব কোণে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশ ঘেঁষে।

বিভিন্ন ধরনের কাগজ, পলিথিন, ডাবের খোসা, পঁচা খাবার, পঁচা সবজিসহ বিভিন্ন ধরনের আবর্জনা দেখা যায় সেখানে। আবর্জনা থেকে মাছি ও মশা উড়ছে। একটু বাতাস এলেই দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ছে আশপাশে। এতে পথচারী বা স্কুল-কলেজে আসা ব্যক্তিরা মুখ ও নাক চেপে ধরে হাঁটছেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা জানান, করোনার বন্ধের সুযোগে মাঠের এক পাশ দখল করে ময়লাগুলো ফেলছেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের লোকজন। এগুলো ফেলা হচ্ছে কোরবানি ঈদের দু-এক দিন আগ থেকে।

তারা জানান, শুরুতে সাময়িক অসুবিধা বা দু-এক দিনের জন্য ময়লাগুলো রাখার কথা বলা হলেও এখনো তা সরানো হয়নি। কলেজ কর্তৃপক্ষ বা স্থানীয় বাসিন্দারা একাধিকবার জনপ্রতিনিধি বা সিটি করপোরেশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করলেও কোনো সুরাহা হয়নি বিষয়টির।

কলেজ মাঠে ময়লার এ দৃশ্য খুবই দৃষ্টিকটু উল্লেখ করে কলেজের অধ্যক্ষ মো. রফিকুল ইসলাম জানান, ময়লার কারণে কলেজের পরিবেশ নষ্টের পাশাপাশি দুর্গন্ধে ভোগান্তিতে পড়ছেন আশপাশের লোকজন। মাঠে শিশু-কিশোরেরা খেলাধুলা করতে পারছে না। এ নিয়ে স্থানীয় কাউন্সিলরের সঙ্গে একাধিকবার কথা হয়েছে। কিন্তু এখনো কোনো সমাধান হয়নি।

মাঠে ময়লা ফেলার বিষয়টি জানতে চাইলে ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. নাসির মোল্লা বলেন, মাঠটি পড়েছে সিটি করপোরেশনের ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডে। এটি নতুন সিটি করপোরেশন হওয়ায় ময়লা ফেলার কোনো নির্দিষ্ট স্থান নেই। যার ফলে আশপাশের লোকজন এখানে ময়লা ফেলেছে। তবে আমরা আগামী দু-এক দিনের মধ্যে মাঠ থেকে ময়লা অপসারণ করব।


মন্তব্য