চাকরি হারালে টুইটারের সিইও কত টাকা পাবেন

চাকরি হারালে টুইটারের সিইও কত টাকা পাবেন
পরাগ আগরওয়াল  © সংগৃহীত

রেকর্ড ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট টুইটার কিনে নিয়েছেন মার্কিন ইলেকট্রিক গাড়ি নির্মাতা ও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক। টুইটারের পরিচালনা পর্ষদ ইলন মাস্কের এই অধিগ্রহণ প্রস্তাব গ্রহণও করেছে।

এই পরিস্থিতিতে প্রশ্ন উঠেছে সদ্য মালিকানা পাওয়া ইলন মাস্কের অধীনে টুইটারের বর্তমান প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) পরাগ আগরওয়ালের চাকরি নিয়ে। বৈশ্বিক সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট এই সংস্থাটির সিইও’কে তার পদ থেকে অপসারণ করা হলে তিনি কত টাকা পেতে পারেন; সেটি নিয়েও শুরু হয়েছে আলোচনা।

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মাইক্রোব্লগিং সাইটের মালিকানা বদলের পরে সিইও পদ থেকে পরাগ আগরওয়ালকে সরতে হতে পারে বলে জল্পনা উঠেছে। আর তেমনটি ঘটলে চুক্তি অনুযায়ী বিপুল অংকের অর্থ পাবেন এই কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন: রাগী স্ত্রীকে সামলানোর উপায় জেনে নিন

এক্ষেত্রে গবেষণা সংস্থা ইকুইলার’র একটি হিসাবও সামনে এনেছে রয়টার্স। গবেষণা সংস্থাটির হিসাব অনুযায়ী, টুইটারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বা সিইও’র পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলে চুক্তি অনুযায়ী ৪২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পাবেন পরাগ আগরওয়াল। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৩৬১ কোটি ৯৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

মূলত ১২ মাসের মধ্যে সিইও’র পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলে এই অর্থ পাবেন পরাগ। ইকুইলারের তথ্য অনুযায়ী, পরাগের এক বছরের বেতন এবং আনুষঙ্গিক অন্যান্য সুবিধা মিলিয়েই এই টাকা পাবেন তিনি। যদিও টুইটারের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

এর আগে ২০১৭ সাল থেকে টুইটারের প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা (সিটিও) হিসেবে কর্মরত ছিলেন পরাগ। তিনি প্রতিষ্ঠানটির প্রযুক্তিগত কলাকৌশলগুলো দেখভাল করতেন। এর আগে ২০১১ সালে সফটওয়্যার প্রকৌশলী হিসেবে টুইটারে যোগ দেন তিনি। সফটওয়্যার উন্নয়নের ধারায় অগ্রগতি আনা এবং সর্বস্তরে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মেশিন লার্নিং প্রযুক্তি প্রয়োগের দায়িত্ব ছিল তার ওপর।

৪২ বছর বয়সী পরাগ আগরওয়াল মুম্বাইয়ের আইআইটি থেকে স্নাতক শেষ করেন। পরে যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি নেন।

এর আগে একই বছর ২৯ নভেম্বর টুইটারের সিইও পদ থেকে সরে দাঁড়ান জ্যাক ডরসি। উত্তরসূরি হিসেবে ঘোষণা করেন পরাগের নাম। তবে পদত্যাগ করলেও ২০২২ সাল পর্যন্ত টুইটারের বোর্ড কমিটিতে থাকছেন ডরসি।


x