শ্রেণিকক্ষে ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের দীর্ঘসময় অবস্থান, শিক্ষককে শোকজ

করোনা
শিক্ষকের মো. মাজেম আলী  © ছবি : সংগৃহীত

নাটোরের গুরুদাসপুরের রোজী মোজাম্মেল মহিলা কলেজের একটি কক্ষে প্রভাষক ও ছাত্রীর দীর্ঘসময় অবস্থান করার ঘটনায় শিক্ষককে কারণ দর্শানোর (শোকজ) নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম মো. মাজেম আলী। তিনি ওই কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক। এ ঘটনায় এলাকায় চরম সমালোচনা চলছে।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, শিক্ষক মাজেম আলী গত ২০ নভেম্বর নিয়মবহির্ভূতভাবে শেষ বিকেলে কলেজে প্রবেশ করে একটি কক্ষে ওই কলেজের প্রথমবর্ষের এক ছাত্রীর সঙ্গে দেড় ঘণ্টার বেশি সময় অবস্থান করেন। ঘটনার পরপরই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে ওই ছাত্রীকে বাড়ি পৌঁছে দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। ঘটনার পরের দিন শিক্ষক মাজেম আলীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন কলেজের অধ্যক্ষ।

কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. রুহুল করিম আব্বাসী বলেন, নিয়মবহির্ভূতভাবে কলেজে প্রবেশ করে দীর্ঘক্ষণ তার বিভাগীয় কক্ষে একজন ছাত্রীসহ অবস্থান করেন শিক্ষক মাজেম। এতে কলেজের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। তাই অভিযুক্তকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত প্রভাষক মাজেম আলী বলেন, কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কমিটি নিয়ে ঝামেলা হওয়ায় ঈর্ষান্বিত হয়ে আমাকে শোকজ করে বিপদে ফেলার চেষ্টা করা হচ্ছে। শোকজের জবাবও দেওয়া হয়েছে।

কলেজটির পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও পৌরমেয়র মো. শাহনেওয়াজ আলী অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। তদন্তের পরিপ্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 


মন্তব্য

x