শিশু শিক্ষার্থীকে মারধর মামলায় মাদ্রাসা অধ্যক্ষের জামিন নামঞ্জুর

শিশু শিক্ষার্থীকে মারধর মামলায় মাদ্রাসা অধ্যক্ষের জামিন নামঞ্জুর
  © ফাইল ছবি

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ উপজেলার আত-তামরীন ইন্টারন্যাশনাল হিফজুল কুরআন মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থীকে মারধরের মামলায় ওই প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদ মোহাম্মদ ইউসুফকে জামিন দেননি হাইকোর্ট। আদালত অধ্যক্ষের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেন।

রোববার বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক-আল-জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আসামির পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজল। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাইনুল হাসান।

মামলার বিবরণে জানা যায়, লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ বাজার এলাকায় প্রতিষ্ঠিত আত-তামরীন ইন্টারন্যাশনাল হিফজুল কুরআন মাদ্রাসায় একজন শিক্ষক দ্বারা বিভিন্ন সময়ে যৌন নির্যাতনের শিকার হয় ১০ বছরের এক শিশু শিক্ষার্থী। এ নিয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিচার দেওয়া হয় অধ্যক্ষের কাছে। অধ্যক্ষ ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা আর ঘটবে না বলে আশ্বস্ত করেন। তদন্ত করে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

বিবরণে বলা হয়, পরে ওই অধ্যক্ষ শিশুটিকে ডেকে নিয়ে বেদম পেটান। মাদ্রাসার সুনাম নষ্ট করার অভিযোগে তাকে মারধর করা হয়। বিষয়টি জানার পর শিশুর মা ও আত্মীয়স্বজন পুলিশের মাধ্যমে শিশুকে মাদ্রাসা থেকে উদ্ধার করে। এসময় অধ্যক্ষ ও সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে গত ১ মার্চ গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় পরদিন ওই শিশুর মা থানায় মামলা করেন। এ মামলায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ হাইকোর্টে জামিন আবেদন করলে তা নামঞ্জুর হয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ