শেকৃবিতে মাদকের সরঞ্জামসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

বিশ্ববিদ্যালয়
শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়  © সংগৃহিত

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) কবি কাজী নজরুল ইসলাম হলে মাদক সরঞ্জামসহ মহিবুল্লাহ রহমান সাগর নামে এক ছাত্রলীগ নেতা আটক হয়েছেন। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কবি কাজী নজরুল ইসলাম হলের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক মহিবুল্লাহ রহমান সাগর শেকৃবি শাখা ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক উপ-সম্পাদক। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি কাজী নজরুল ইসলাম হলের আবাসিক ছাত্র এবং কৃষি অনুষদের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, গত ২২ ফেব্রুয়ারি এক জরুরী নোটিশে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয় শেকৃবি প্রশাসন। হলে শিক্ষার্থীরা অবস্থান করছে কিনা দেখতে হলে হলে মহড়া দেয় হল প্রভোস্ট, সহকারী প্রভোস্টসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টোরিয়াল বডি। এসময় কবি কাজী নজরুল ইসলাম হল থেকে মহিবুল্লাহ রহমান সাগর নামে এক ছাত্রকে বের হওয়ার সময় সন্দেহজনক মনে হলে তাকে তল্লাশি চালানো হয়। এসময় তার কাছে মাদক সেবনের সরঞ্জাম পাওয়া যায়। পরে ওই শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়।

এ বিষয়ে শেকৃবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম মাসুদুর রহমান মিঠু বলেন, আমি এ বিষয়ে অবগত না। আজ সকাল ১০টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তবে মাদক সংশ্লিষ্ট বিষয়ে শেকৃবি ছাত্রলীগ জিরো টলারেন্স।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মো. হারুন-উর রশীদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় এখন বন্ধ। হলে কেউ অবস্থান করছে কি না তা অনুসন্ধানে গিয়ে আমরা তাকে ধরেছি। আমরা তার সকল তথ্য লিখিত নিয়েছি। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ২৫ জানুয়ারি গোপন তথ্যের ভিত্তিতে নবাব সিরাজউদ্দৌলা হলের ৫০৮ নং কক্ষে অভিযান চালিয়ে মাদকের সরঞ্জামসহ ৫ জনকে আটক করে প্রক্টরিয়াল বডি। ৫ জন হলেন- ২০১৭ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র কুতুবুজ্জামান কাউসার, শাহজালাল সরকার, মুস্তফা হুসাইন আতিক এবং ২০১৮ শিক্ষাবর্ষের প্রদীপ্ত রায় দিপ্ত ও মুস্তাকিম রহমান। তাদের মধ্যে কাউসার শেকৃবি ছাত্রলীগ কমিটির বিজ্ঞান বিষয়ক উপ-সম্পাদক।

তাদের বিরুদ্ধে কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে প্রক্টর বলেন, এদের নিয়ে আমরা রিপোর্ট জমা দিয়েছি। রিপোর্ট শৃঙ্খলা কমিটিতে যাবে। তাদের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত আসবে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ