জাবি ভিসি নূরুল আলমের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

জাবি ভিসি নূরুল আলমের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট
জাবি ভিসি নূরুল আলম  © সংগৃহীত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলমের উপাচার্য পদের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করা হয়েছে।

গত  মঙ্গলবার ( আগস্ট) হাইকোর্টের মূল ভবনের ১১ নম্বর কোর্টে বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর বেঞ্চে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট এ্যাডভোকেট শামসুজ্জোহার পক্ষে এ্যাডভোকেট আলাউদ্দিন আহমেদ রিটটি দায়ের করেন। 

বৃহস্পতিবার ( ৪ আগস্ট) রিটকারী আইনজীবী আলাউদ্দিন আহম্মেদ দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আরও পড়ুন: জাবির প্রস্তাবিত সিন্ডকেট সদস্যের তালিকায় বিতর্কিত দুই শিক্ষক

আলাউদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক অবসর আইন অনুযায়ী একজন শিক্ষক ৬৫ বছর বয়সে অবসরে যাবেন। অধ্যাপক নুরুল আলমের জন্ম তারিখ ১ জানুয়ারি ১৯৫৭ সাল। সে হিসেবে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখে তাঁর চাকুরির বয়সপূর্তি হয়েছে। এরপর তার আর পদে থাকার বৈধতা থাকে না।’

তিনি আরও বলেন, আরেকটি বিষয় আমরা কোর্টের কাছে জানতে চেয়েছি যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আইন -১৯৭৩ এর ধারা ২০ অনুযায়ী সিনেট অধিবেশনে আহ্বান করার এখতিয়ার শুধু উপাচার্যের। কিন্তু গত ২৭ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের চুক্তিভিত্তিক রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ কর্তৃক সিনেটরদের কাছে উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের নিরিখে একটি বিশেষ সিনেট অধিবেশন আহ্বান করেছেন। কিন্তু সেখানের কোথাও উপাচার্যের আদেশ/ উপাচার্য শব্দটি নাই। কাজেই এটিও অবৈধ এবং রেজিস্ট্রার শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন।

২ আগস্ট বিষয়টি কোর্টে শুনানির জন্য উত্থাপিত হলে কোর্ট শুনানি না করে আগে বিবাদীদেরকে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করতে বলে। আজ (৪ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারকে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আলাউদ্দিন আহম্মেদ। আগামী সোমবার ( ৯ আগস্ট) ওই বেঞ্চে রিটটির শুনানি হবে।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (চুক্তিভিত্তিক) রহিমা কানিজ বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত  লিগ্যাল নোটিশ পাননি বলে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে জানিয়েছেন।

এ বিষয় জানতে যোগাযোগ করার চেস্টা করা হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলমকে মুঠোফোনে পাওয়া যায় নি। 


x

সর্বশেষ সংবাদ