জাবির ১১ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

জাবির ১১ শিক্ষার্থী বহিষ্কার
  © ফাইল ফটো

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) তৃতীয় বর্ষের (৪৭তম ব্যাচ) বিভিন্ন বিভাগের ১১ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গত ৯ জানুয়ারি ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের বিশেষ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের ২৩ জুলাই বঙ্গবন্ধু হলে র‌্যাগিং সংক্রান্ত ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির সুপারিশে এ আদেশ দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য প্রণীত শৃঙ্খলা সংক্রান্ত অধ্যাদেশ-২০১৮ এর ৫(ঘ) ধারা লংঘন করায় অধ্যাদেশের ৩(২)(খ) ধারা অনুযায়ী অনুষ্ঠিত বিশেষ সিন্ডিকেটের দিন হতে বহিষ্কারাদেশ কার্যকর হবে। এ ছাড়া বহিষ্কারাদেশ শেষ হলে বঙ্গবন্ধ হল ত্যাগ করে বরাদ্দকৃত হলে উঠার নিদের্শও দেওয়া হয়েছে।

বহিষ্কৃতরা হলেন- মার্কেটিং বিভাগের মো. শিহাব ও মোহাম্মদ মশিউর রহমান, নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের তামীম হোসেন ও রিজওয়ান রাশেদ, একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের ছালাউদ্দিন ইউসুফ ও রোজেন নূর। বাংলা বিভাগের শিমুল আহমেদ, ইংরেজি বিভাগের সাকিল মাহমুদ, চারুকলা বিভাগের আকাশ হোসেন, ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ফয়জুল ইসলাম নিরব এবং ইতিহাস বিভাগের সারোয়ার হোসেন শাকিল।

তারা সকলেই বঙ্গবন্ধু হলে অবৈধ্যভাবে অবস্থান করছিলেন। এদের মধ্যে শিহাবকে দুই বছরের জন্য এবং বাকি ১০ জনকে এক বছরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এ সময়ে এই শিক্ষার্থীরা হলে কিংবা ক্যাম্পাসে অবস্থান করতে পারবেন না বলেও জানানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ফিরোজ উল হাসান বলেন, বঙ্গবন্ধু হলে র‌্যাগিংয়ের জন্য কয়েকজনকে বহিষ্কার করেছে। তারা কেউই বঙ্গবন্ধু হলের শিক্ষার্থী না। নিজের হলে না থেকে অন্য হলে থেকে র‌্যাগিংয়ে জড়িত থাকার অপরাধে তাদেরকে বহিষ্কার করা হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ