ভর্তি পরীক্ষা নেবে ঢাবি, অনলাইনের বিপক্ষে ডিনরা

ভর্তি পরীক্ষা নেবে ঢাবি, অনলাইনের বিপক্ষে ডিনরা
  © সংগৃহীত

পরীক্ষার মাধ্যমেই স্নাতক প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ভর্তি করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)। আজ রবিবার (১৮ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটির বৈঠকে এই বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ওই বৈঠকে অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা না যাওয়ার বিষয়ে মত দিয়েছেন বিভিন্ন অনুষদের ডিনরা।

এদিকে, আগামী মঙ্গলবার এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে ফের বসেছে ডিনস কমিটির সভা। ডিনস কমিটির একাধিক সদস্য দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, চলতি বছর পাবলিক ও স্বায়ত্বশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণে গতকাল শনিবার উপাচার্যদের সংগঠন ‘বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ’ এক ভার্চুয়াল মিটিংয়ে বসে। সেখানে পরীক্ষার মাধ্যমেই স্নাতক প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ভর্তি নেয়ার বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। তবে করোনার কারণে অধিকাংশ উপাচার্যই অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে মত দেন।

সেক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ নূরের উদ্ভাবিত সফটওয়্যার ব্যবহারের প্রস্তাব এসেছে। বৈঠকে এ প্রস্তাবে সবাই প্রশংসা করেছেন। এখন এই প্রস্তাবটি শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) অনুমোদন দিলে অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনেই পরীক্ষা নেয়া হবে।

তথ্যমতে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে না বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। উপাচার্য পরিষদের বৈঠকের পর দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, কোন প্রক্রিয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা নেবে সেটি নিয়ে আমরা বসবো। চলতি সপ্তাহে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে বলে উপাচার্য জানান।

এদিকে, আজ রবিবার দুপুরে ডিনস কমিটির বৈঠকে পরীক্ষার মাধ্যমেই স্নাতক প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ভর্তি করার সিদ্ধান্ত হলেও অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তি প্রক্রিয়ায় না যাওয়ার বিষয়ে মত দিয়েছেন উপস্থিত ডিনরা। আগামী মঙ্গলবার এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করতে ফের বসেছে ডিনস কমিটির সভা।

এ বিষয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. হাসানুজ্জামান দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী নেবে এটা নিশ্চিত। তবে কিভাবে এ পরীক্ষা নেবে সে বিষয়ে মঙ্গলবারে সিদ্ধান্ত হবে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের উদ্ভাবিত সফটওয়্যারে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে জানা গেছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিগত সময়ে নেয়া পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতির আশ্রয় নেয়ার মতো নেতিবাচক ঘটনাও ঘটেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় এক মার্কের জন্য শিক্ষার্থীদের পজিশন যেখানে অনেক দূরে চলে যায়, সেই রকম একটি সেন্সিসিটিভ পরীক্ষা অনলাইনে নিবে কিনা সে বিষয়ে চূড়ান্ত করবে মঙ্গলবারের সভা।

এদিকে, দুই ঘণ্টাব্যাপী ডিনস কমিটির সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামালসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিনরা উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য