ধর্ষণের জন্য ‘নারীর পোশাক’কে দায়ী করে বিতর্কে ইমরান খান

ইমরান খান
ইমরান খান  © সংগৃহীত

ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধির কারণ হিসেবে নারীর পোশাককে দোষারোপ করে বিতর্কে জড়িয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

সম্প্রতি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, কোনো সমাজে অশ্লীলতা বাড়তে থাকলে পরিণামে ধর্ষণও বাড়ে৷ (পাকিস্তানের) সমাজে ধর্ষণের ঘটনা খুব দ্রুতই বেড়েছে বলেও এসময় জানান তিনি।

ওই সাক্ষাৎকারে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নারীদের শালীন পোশাক পরার পরামর্শও দেন বলেও বিবিসির খবরে বলা হয়।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, পর্দা করার সারবস্তুই হলো আকর্ষণ করা থেকে বিরত থাকা। নিজেকে বিরত রাখার ইচ্ছাশক্তি সবার নেই।

তবে ইমরান খানের ওই মন্তব্যের পর প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন অধিকার সংগঠন। অনলাইনে বুধবার (৭ এপ্রিল) এ-সংক্রান্ত একটি বিবৃতিতে অনেকে স্বাক্ষরও করেছেন।

এক যৌথ বিবৃতিতে তারা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যা বলেছেন সেটা আদতে ভুল, অসহনশীল এবং বিপজ্জনক। তার এ বক্তব্য সরাসরি ধর্ষণের পক্ষে প্রচারণা এবং এটি ধর্ষণের মতো অপরাধকে উস্কে দেবে।

ইমরান খানের মন্তব্যে তারা ‘হতভম্ব’ হয়েছে বলে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস কমিশন অব পাকিস্তান।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ