অভিনয়ের বাইরে যে চাকরি করেন হাবু ভাই!

অভিনয়ের বাইরে যে চাকরি করেন হাবু ভাই!
চাষী আলম  © টিডিসি ফটো

হালের আলোচিত ধারাবাহিক নাটক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’। নাটকটির সিজন চারের প্রচার চলছে বর্তমানে। আর এ নাটকের দর্শকপ্রিয় চরিত্র ‘হাবু ভাই’। এ চরিত্রে অভিনয় করেছেন চাষী আলম। শুরু থেকেই তার সংলাপ এবং অভিনয়ের কারণে দর্শকহৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন।

কাজল আরেফিন অমি পরিচালিত এ ধারাবাহিকটির মাধ্যমে তার চরিত্রটি দর্শকদের কাছে জীবন্ত হয়ে উঠেছে। অভিনয়ের বাইরে ব্যক্তিজীবনে তিনি কী করেন সেটি জানতে আগ্রহের কমতি নেই নেটজনতার।

সম্প্রতি হাবু ভাই ওরফে চাষী আলম জানিয়েছেন অভিনয়ের পাশাপাশি চাকরিও করেন তিনি।তিনি জানান, ‘একটা চাকরি করি, অফিসেও যাই দেরিতে। আমার সবকিছুই দেরিতে হয়। এই যে এখন জনপ্রিয়তা, এটাও দেরিতে এসেছে। কিন্তু আমি সব পাই।’ কোথায় চাকরি করেন জানতে চাইলে হাবু ভাই জানান, ‘আমি একটা এডভারটাইজিং এজেন্সিতে আছি।

আরও পড়ুন: এক-দেড় মাসের মধ্যে করোনার নতুন ঢেউ আসতে পারে

দর্শকদের বাংলা নাটক দেখার আহ্বান জানিয়ে এই অভিনেতার ভাষ্য, ‘আমার জন্য দোয়া করবেন। ব্যাচেলর পয়েন্টের জন্যও দোয়া করবেন। বাংলা নাটকের প্রতি আগ্রহ দেখাবেন, বেশি বেশি বাংলা নাটক দেখবেন।

যশোরে জন্ম নেওয়া ঢাকায় বেড়ে ওঠা চাষী আলমের গ্রামের বাড়ি ফরিদপুর। বাঙ্লা কলেজের প্রাক্তন এই ছাত্র প্রথমে প্রয়াত বিজ্ঞাপন নির্মাতা তানভীর হাসানের নির্দেশনায় ১৯৯৫-৯৬ সালে একটি বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেন। কিন্তু প্রথম কোন নাটকে তিনি অভিনয় করেন-সেটি মনে নেই। একজন মাহবুব আলম চাষী থেকে চাষী আলম হয়ে ওঠার ক্ষেত্রে গুরু হিসেবে তিনি নির্মাতা ইফতেখার আহমেদ ফাহমিকেই মেনে আসছেন। তার আজকের চাষী আলম হয়ে ওঠার নেপথ্যে তার গুরু ফাহমিরই অবদান সবচেয়ে বেশি। তার নির্দেশনায় চাষী আলম ‘ফিফটি ফিফটি’, ‘রিং’, ‘হাউজফুল’সহ (যৌথভাবে নির্মাণ করেছেন রেদওয়ান রনি ও ফাহমি) বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করে দর্শকের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন।


x

সর্বশেষ সংবাদ