ফারুকীর প্রথম ওয়েব সিরিজ ‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলম্যান’, ৯ জুলাই মুক্তি

‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’ ওয়েব সিরিজ
‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’ ওয়েব সিরিজ  © সংগৃহীত

‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’ নামে মেগা বাংলাদেশি ওরিজিনাল ওয়েব সিরিজ নিয়ে আসছে দক্ষিণ এশিয়ার কনটেন্টের ক্ষেত্রে সর্ববৃহৎ প্ল্যাটফর্ম জিফাইভ গ্লোবাল। এটি মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর প্রথম ওয়েব সিরিজ। আর বাংলাদেশে জিফাইভ গ্লোবালের ষষ্ঠ অরিজিনাল আর দ্বিতীয় ওয়েব সিরিজ। আাগামী ৯ জুলাই ওয়েব সিরিজটি মুক্তি পাবে।

সোমবার ভার্চুয়াল এক প্রেস কনফারেন্সে খ্যাতিমান নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেনের শিল্পী ও কলাকুশলী এবং জিফাইভগ্লোবালের চিফ বিজনেস অফিসার অর্চনা আনন্দের উপস্থিতিতে ওয়েব সিরিজটির একটি ট্রেলার উন্মোচন করা হয়।

অনুষ্ঠানটিতে ওয়েব সিরিজের অভিনেতা-অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিন, পার্থ বড়ুয়া, হাসান মাসুদ, ইরেশ যাকের, মুকিত জাকারিয়া, পাভেল আরিন, মারিয়া নূর এবং কলাকুশলীদের মধ্যে প্রযোজক নুসরাত তিশা, তানভীর হোসেনসহ ডিওপি অ্যালেক্সি কসোরুকভ উপস্থিত ছিলেন।

ফারুকীর পরিচালায় এবং অ্যালেক্সি কসোরুকভের সিনেমাটোগ্রাফিতে বাংলাদেশের এক সাধারণ মেয়ের গল্প ‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’। সাধারণ মেয়ে থেকে ধীরে ধীরে দেশের সকল কর্মজীবী নারীর কণ্ঠস্বর হয়ে ওঠার গল্প নিয়ে এই ওয়েব সিরিজ। আট পর্বের সিরিজটিতে নারী-পুরুষের সম্পর্কের জটিলতা, সমাজে নারী বিদ্বেষের মতো বিষয়গুলো উঠে এসেছে যা নিশ্চিতভাবে অনুরণিত হবে ১৯০টি দেশের দর্শকের হৃদয়ে।

‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’র ট্রেলারটি দেখতে: https://cutt.ly/ZEE5BDLadiesAndGentlemenTrailer
ট্রেলারটি উদ্বোধনের পর ওয়েব সিরিজের অভিনেতা এবং কলাকুশলীরা তাদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন। নির্মাণের সময় কাজের ফাঁকে ফাঁকে আনন্দ, পারস্পরিক বোঝাপড়া, তাদের খুনসুটি উঠে আসে অনুষ্ঠানে।

জিফাইভ গ্লোবালের প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাওয়া মাইনকার চিপায়, ডব্লিওটিফ্রাই, কন্ট্রাক্ট, যদি কিন্তু তবুও এবং সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া ‘ঠাণ্ডা’ইতোমধ্যে দর্শকদের মধ্যে সাড়া ফেলেছে। এবার ‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’র মাধ্যমে দর্শকদের আরো একটি দারুণ গল্প উপহার দিতে যাচ্ছে জিফাইভ গ্লোবাল।

জিফাইভ গ্লোবালের চিফ বিজনেস অফিসার অর্চনা আনন্দ বলেন, ‘বাংলাদেশে অনেক প্রতিভাবান পরিচালক ও শিল্পী রয়েছেন। এখানে রয়েছে মৌলিক এবং নিজস্ব সংস্কৃতির ধারা। ফারুকীর সাথে মিলে বাংলাদেশের একান্ত নিজের গল্পের ওয়েব সিরিজ দর্শকদের সামনে হাজির করতে পেরে আমরা আনন্দিত। ‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’র গল্প বর্তমান বিশ্বে প্রাসঙ্গিক সামাজিক ইস্যু নিয়ে আবর্তিত। আমরা নিশ্চিত এই গল্প কেবল বাংলাদেশি দর্শকদের হৃদয়ে নাড়া দেবে না, অন্যান্য দেশের দর্শকদেরও আন্দোলিত করবে।’


মন্তব্য