ভারী বর্ষণে চুয়েট ক্যাম্পাসে পানি ঢুকেছে

চুয়েট
চুয়েটের বঙ্গবন্ধু হলের সামনের অবস্থা  © সংগৃহীত

ভারী বর্ষণে চট্টগ্রামের রাউজানে তিনটি কাঁচা বসতঘর ধসে পড়েছে। রোববার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার পাহাড়তলি ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণবাগ পাড়ার গৌঙ্কিম দাশের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে, উপজেলার পাহাড়তলি ইউনিয়নে অবস্থিত চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) ক্যাম্পাসে পানি ঢুকে পড়েছে। 

এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে পানি বেড়ে জলাবদ্ধতার খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। ভারী বর্ষণ অব্যাহত আছে ৷ বৃষ্টি বন্ধ না হলে পানি বেড়ে জনদুর্ভোগ বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। আরও দুই তিন দিন ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তর। 

পাহাড়তলি ইউনিয়নে বসতঘর ধসের ঘটনায় আশা দাশ নামে ৮০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা ও বৃত্তি দাশ নামে ৪০ বছর বয়সী দুই নারী আহত হয়েছেন। আহত আশা দাশ জুনু দাশের স্ত্রী ও বৃত্তি দাশ গৌঙ্কিম দাশের স্ত্রী। ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন গৌঙ্কিম দাশ, মিন্টু দাশ, শিবু দাশ। 

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, ভারী বর্ষণে ওই এলাকায় পানি বেড়ে একাধিক বসতঘরে প্রবেশ করেছে। এ সময় তিনটি কাঁচা বসতঘর ধসে পড়েছে। ঘরে থাকা আশা দাশ ও বৃত্তি দাশ নামে দুই নারী সামান্য আহত হয়েছেন। তারা দুজন প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা নিয়েছেন। 

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন বলেন, ভারী বর্ষণে কারণে তিন ভাইয়ের দুটি কাঁচাঘর ধসে গেছে। তেমন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। যে এলাকায় ঘটনা ঘটেছে ওই এলাকাটি নিচু হওয়ায় পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় এই ঘটনা ঘটে। 

এদিকে রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুস সামাদ সিকদার বলেন, ‘বসতঘর ধসের খবর পেয়েছি। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করা হয়েছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ