গাছ কেটে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ উপাচার্যের বিরুদ্ধে

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে গাছ কেটে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ করা হয়েছে
মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে গাছ কেটে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ করা হয়েছে  © সংগৃহীত

মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসনীর স্মৃতি বিজরিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর গাছ নিধনের প্রতিবাদে সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে ১৫টি প্রতিষ্ঠান। মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (মাভাবিপ্রবি) উপাচার্যের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ তোলা হয়।

আজ বুধবার (০৯ জুন) টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে মাভাবিপ্রবি ছাড়াও অনিয়মতান্ত্রিকভাবে মাওলানা হামিদ খান ভাসানী প্রতিষ্ঠিত আরও ৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গাছকাটাসহ নানা অনিয়ম তুলে ধরা হয়। মানববন্ধনে অংশ নেওয়া ১৫ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ৮টি সংগঠন রয়েছে।

এতে বক্তারা বলেন, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (মাভাবিপ্রবি) ভিসি ড. মো. আলাউদ্দিন অনিয়মতান্ত্রিকভাবে মাওলানা ভাসানীর প্রতিষ্ঠিত অন্যান্য ৭টি প্রতিষ্ঠানের ৫১টি গাছ কেটে বিক্রি করেন। যার মূল্য ৪ লাখ ৫ হাজার টাকা। প্রকৃতির সৌন্দর্য নষ্ট করে এসব গাছ কাটা বন্ধের দাবি জানান তারা।

তারা বলেন, যেসব গাছ কাটা হয়েছে সেগুলো বিক্রির টাকা সরকারের কোষাগারে দেওয়ার দাবি করেন তারা। এরপর নতুন করে আর কোন গাছ কেটে ভিসি যেন স্থানীয় পরিবেশ নষ্ট না করে এব্যাপারে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। গাছ কাটা বন্ধ না করলে জোড়ালো আন্দোলনের হুমকি দেন কর্মরত শিক্ষকরাসহ সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর নাতি হাসমত খান ভাসানী, ভাসানী পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি কবি বুলবুল খান মাহবুব, ভাসানী ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক সানু, সিপিবির সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও মানবাধিকার কর্মী আব্দুল গণি আল-রুহি, ভাসানী স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক এনায়েত করিম প্রমুখ।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ