ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের সপ্তম আসর শুরু ৯ ডিসেম্বর

মেলা
জুনাইদ আহমেদ পলক  © টিডিসি ফটো

আগামী ৯ ডিসেম্বর তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সবচেয়ে বড় প্রদর্শনী ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের সপ্তম আসর শুরু হচ্ছে। প্রদর্শনী চলবে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ৯ ডিসেম্বর সকাল ১১টায় ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০২০ উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ।

রোববার (২৯ নভেম্বর) আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তিনি বলেন, ভার্চুয়াল ও ভৌত উভয় অবকাঠামো ব্যবহার করে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০২০’। ১০ ডিসেম্বর বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত কনফারেন্সে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, বিগত ১২ বছরে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিভিন্ন উন্নয়ন তুলে ধরা হবে এই প্রদর্শনীতে। পাশাপাশি তথ্যপ্রযুক্তি ও উদ্ভাবনের ব্যবসায় দেশ-বিদেশি সম্ভাবনাগুলোর সঙ্গে দেশীয় উদ্যোক্তাদের সংযোগ সৃষ্টির সুযোগ তুলে ধরা হবে। এবারের প্রদর্শনীতে বিষয়ভিত্তিক ২৪টি সেমিনার হবে।

পলক বলেন, বেত বুনিয়ায় বাংলাদেশের প্রথম ভূ-উপগ্রহ স্থাপনের মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদেশের মানুষকে তথ্য প্রযুক্তির সেবার যাত্রা শুরু করেছিলেন। তাঁর স্বপ্ন ছিলো বিজ্ঞান ও আধুনিকতার সমন্বয়ে দেশ গড়া। বঙ্গবন্ধুর সেই অসমাপ্ত স্বপ্ন বাস্তবায়নে লক্ষ্যে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বাংলাদেশের মানুষ ৪৬ হাজার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নাগরিক সেবা লাভ করছে। ২০২১ সালের মধ্যে আমরা মধ্যম আয়ে রূপান্তরিত হব এবং ২০৪১ সালে তৈরি হবে উন্নত বাংলাদেশ। আমাদের এই সক্ষমতা তুলে ধরতেই ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড প্ল্যাটফর্মের আয়োজন।

আগামী ৯ ডিসেম্বর সকাল ১০.৩০ মিনিট থেকে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন শুরু হবে এবং সকাল ১১ টায় অনলাইনে যুক্ত হয়ে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ মেলার শুভ উদ্বোধন করবেন। এরপর আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০২০’ এর যাত্রা শুরু হবে। এর মধ্য দিয়ে যেকেউ মেলার ভার্চুয়াল স্টলগুলো পরিদর্শন করে যোগাযোগ, সেবা ও পরামর্শ গ্রহণ করতে পারবেন।

১০ ডিসেম্বর রাত ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্স। উক্ত কনফারেন্সে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সম পদমর্যাদার ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে ‘অ্যামব্রাসিং ডিজিটাল টেকনোলজিস ইন দ্যা নিউ নরমাল’ বিষয়ে ‘কি-নোট’ প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করবেন প্রধাননমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

আর ১১ ডিসেম্বর বিকাল ৩টায় ‘ইনক্লুসিভ ডেভলপমেন্ট’ বিষয়ে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অংশগ্রহণ করবেন ডব্লিউএইচও এর অ্যাডভাইজরি প্যানেলের মেন্টাল হেলথ বিষয়ক এক্সপার্ট ও অটিজম বিষয়ক ন্যাশনাল অ্যাডভাইজরি কমিটির চেয়ারপার্সন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন। ঐদিন ১২ টি ক্যাটাগরিতে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এর সম্মাননা প্রদান করা হবে এবং সন্ধ্যা ৫.৩০ মিনিটে মেলার সমাপনী ঘোষণা করা হবে।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। এছাড়াও উক্ত অনলাইন মেলায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে তাঁর শৈশব, কৈশোর ও বর্নাঢ্য রাজনৈতিক জীবন তুলে ধরতে সাজানো হয়েছে ‘মুজিব কর্ণার’। এ বছর ১০ লাখেরও বেশি দেশি ও বিদেশি পরিদর্শক’কে উক্ত মেলায় অংশগ্রহণ করানোর লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের অতিরিক্ত সচিব রীনা পারভিন, এটুআই এর প্রকল্প পরিচালক ড. মো. আব্দুল মান্নান পিএএ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল-এর নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতিম দেব, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)-এর সভাপতি আলমাস কবির। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন হাইটেক পার্ক, এটুআই, উইমেন এন্ড ই-কমার্স, বাক্য, ডিজিটাল সিকিউরিটি এজেন্সিসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা এবং গণমাধ্যমের প্রতিনিধিবৃন্দ।


মন্তব্য