গ্যারেজে আটকে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি

গ্যারেজে আটকে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি
গ্যারেজে আটকে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি  © প্রতীকী ছবি

প্রায় পৌনে দুই ঘণ্টা গ্যারেজে আটকে রেখে এক কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর মহাখালীর সরকারি তিতুমীর কলেজের উল্টোদিকের গলির একটি গ্যারেজে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় বখাটেরা ওই ছাত্রীকে তাঁর বন্ধুর সামনে শ্লীলতাহানি করেছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী শুক্রবার থানায় এসে অভিযোগ করবেন বলে বনানী থানার পুলিশ জানিয়েছে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী বলেন, সন্ধ্যায় তিনি ও তাঁর এক বন্ধু মহাখালীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিষয়ে স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে ভর্তির খোঁজ নিতে যান। তাঁরা সেখান থেকে বের হলে সাত থেকে আটজন যুবক তাঁদের ধরে পর্যটন করপোরেশনের পেছনের গলির একটি গাড়ির গ্যারেজ নিয়ে আটকে রাখে। এ সময় প্রতিবাদ করতে চাইলে বখাটেরা তাঁর বন্ধুকে মারধর করেন। বখাটেরা তাঁকেও (ছাত্রী) মারধর করে ও শ্লীলতাহানি করেন। এতে তিনি রক্তাক্ত জখম হন।

ভুক্তভোগী ছাত্রী বলেন, বখাটেদের মধ্যে একজন আরেকজনকে মোবারক বলে ডাকছিলেন। তাঁরা তাঁর বন্ধু ও তাঁর কাছ থেকে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন। এক ফাঁকে তিনি জাতীয় জরুরি সেবা ‘৯৯৯’-এ ফোন দিলে তাঁরা থানা-পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন।

ওই শিক্ষার্থী জানান, রাত সাড়ে আটটার দিকে সুযোগ বুঝে উবার ডেকে সেই গাড়িতে বাসায় ফেরেন। এ সময় বনানী থানার পুলিশ তাঁকে ঘটনাস্থলে আসতে বলেন। তখন তিনি পুলিশকে বলেছেন, নিরাপত্তাহীনতার কারণে তিনি এখন যেতে পারবেন না। বখাটেরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকার কথা জানিয়ে তিনি তাদের ধরতে বলেন। কিন্তু পুলিশ তাঁকে বলে তিনি ঘটনাস্থলে না এলে তাঁরা কাউকে আটক করবেন না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আযম মিয়া বলেন, কলেজ ছাত্রীকে সব ধরনের সহায়তা করতে প্রস্তুত। কিন্তু ছাত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি পুলিশকে রাতে তাঁর বাসায় যেতে বারণ করে বলেছেন, শুক্রবার বিকেল ৪টায় তিনি থানায় যাবেন।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ