চাকরির দাবিতে আমরণ অনশনে ঢাবি শিক্ষার্থী 

রাবি
ঢাবি শিক্ষার্থী শাহীন   © সংগৃহীত

চাকরির দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) স্নাতকোত্তর শেষ বর্ষের এক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী। সোমবার (৯ মে) সকালে ঝিনাইদহ শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ অনশনে বসেছেন ঢাবির শিক্ষার্থী শাহীন আলম। 

শাহীন আলম ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার আজমপুর ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের বাসিন্দা। ২০১৫ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হন তিনি। স্নাতকে ২.৭৫ সিজিপিএ পেয়েছেন তিনি। বর্তমানে একই বিভাগে স্নাতকোত্তরে পড়ছেন শাহীন।

শাহীনের অভিযোগ, সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করছেন তিনি। তবে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী হওয়ায় কোনো চাকরিই পাচ্ছেন না তিনি।

শাহীন জানান, আমার সরকারি চাকরির বয়সসীমা প্রায় পেরিয়ে যাচ্ছে। অথচ কোনো চাকরিতেই ঢুকতে পারছি না। চাকরি যদি নাই পাই, তাহলে সরকার কেন পড়ালেখার সুযোগ দিলো? আমি লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হচ্ছি, কিন্তু পরের ধাপে আমাকে বাদ দেওয়া হচ্ছে। 

তিনি আরও জানান, পড়ালেখার পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তিনি। করোনাকালীন সময়ে বাড়িতে থাকায় নিজ উদ্যোগে বাংলাদেশ ও ভারতের প্রায় ২০০ শিক্ষার্থীকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন : এক ঘরে দুই ভিসি, স্বামী বেসরকারি-স্ত্রী সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের

শাহীন জানান সমাজসেবা অধিদপ্তরের কারিগরি প্রশিক্ষক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের টেলিফোন অপারেটর, বাংলাদেশ টেলিভিশনের টেলিফোন অপারেটর পদসহ কয়েকটি চাকরির পরীক্ষা দিয়েছেন তিনি।

এ দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী তরুণ জানান, সমাজসেবা অধিদপ্তরের কারিগরি প্রশিক্ষকের পরীক্ষায় রিটেনে পাস করেছি। পরে বাদ পড়ে যাই। বাকিগুলোয় শ্রুতিলেখকের নানান সমস্যায় ঠিকমতো পরীক্ষা দিতে পারিনি।

সরকার যতক্ষণ পর্যন্ত চাকরির নিশ্চয়তা না দেবে, ততক্ষণ পর্যন্ত এক ফোটা পানিও পান করবেন না বলে জানিয়েছেন তিনি। 


x

সর্বশেষ সংবাদ