রাবিতে ছাত্রলীগের আন্দোলন স্থগিত

আন্দোলন
আন্দোলনরত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা  © টিডিসি ফটো

টানা তিস ঘণ্টা আলোচনার পর অবশেষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের গেটে লাগানো তালা খুলে দিয়েছেন চাকরী প্রত্যাশী আন্দোলনরত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বিকেল তিনটায় এ সিদ্ধান্তের কথা জানান আন্দোলনকরীরা।

এসময় সাংবাদিকদের দেয়া সাক্ষাৎকারে চাকরী প্রত্যাশী ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি মো. ইলিয়াস হোসেন বলেন, আলোচনা একেবারেই ফলপ্রসূ হয় নি। শুধুমাত্র শিক্ষকদের অনুরোধ এবং রসায়ন বিভাগের সভাপতি ফারুক স্যারের অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুতে আজকের জন্য আমরা আন্দোলন স্থগিত করছি। আগামীকাল উপাচার্য স্যারসহ আলোচনা হবে। সেখানে যদি আলোচনা ফলপ্রসু হয় তবে আমরা আন্দোলন থেকে সড়ে আসবো। তাছাড়া আরো কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেন এই মুখপাত্র।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ৭৩ বের এ্যাক্ট দ্বারাই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত হবে এবং সেটা যাতে সমুন্নত থাকে সেজন্যই মুলোত আমাদের এই আন্দোলন।

এদিকে সাংবাদিকদের সাক্ষাৎকারে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, আজকে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের সভাপতি ইন্তেকাল করেছেন। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা মুলত তার বিদেহী আত্মার প্রতি সম্মান রেখেই এই আন্দোলন আজকের মতো স্থগিত করেছেন। আগামীকাল ১২ টায় উপাচার্যের সাথে আবার আলোচনা হবে। সেখানে তাদের সকল দাবি দাওয়াগুলো আইনসিদ্ধ ভাবে সমাধানে চেষ্টা করা হবে বলে জানান তিনি।

এর আগে গতকাল রাত ৯ টায় চাকরী প্রত্যাশী ছাত্রলীগের প্রায় ৩০ জন নেতাকর্মী উপাচার্যের বাসভবনে তালা ঝুলিয়ে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখেন এবং সকালে তাঁর সম্মানার্থে বাসভবনের তালা খুলে বিশ্বিবদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন তালাবদ্ধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন আন্দোলনকারীরা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ