এখন রাজনীতির নামে চলছে অপরাজনীতি: অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক

অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক
ঢাবির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক  © ফাইল ফটো

এখন রাজনীতি বলতে কিছু নেই মন্তব্য করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেছেন, ‘আমাদের দেশে রাজনীতির নামে চলছে অপরাজনীতি। রাজনীতি করার জন্য শুধু লবিং বা গ্রুপিং নয়, টাকা পয়সা লেনদেন হয়। রাজনীতিতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার জায়গা নেই, আদর্শ অনেক দূরে সরে গেছে। শিক্ষকদের এ বাস্তবতা মেনে নিয়ে দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে।’ একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেছেন।

অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘সব নীতির মধ্যে শ্রেষ্ঠ নীতি রাজনীতি। এটি দেশ ও মানুষের কল্যাণের জন্য। সে অর্থে মানুষ রাজনীতি করলে কোনো সমস্যা দেখি না। রাজনীতির মূল উদ্দেশ্য জনকল্যাণ। যে রাজনীতি করছেন, তার একটি আদর্শে রাজনীতি করার কথা। এতে থাকা সম্মানজনক কিনা তা তাদের বুঝতে হবে।

তিনি বলেন, ‘ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ছাত্র-শিক্ষকরা ছিলেন। তারাই অনুপ্রাণিত করেছেন আমাদের। সে আদর্শকে সামনে রেখে এগিয়েছি আমরা। কিন্তু সময়ের পরিবর্তন হয়েছে, অন্য দশজন পেশাজীবী যেভাবে রাজনীতিতে যুক্ত হচ্ছেন শিক্ষকরাও তেমন রাজনীতি করছেন।’ এটাকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক আরো বলেন, ‘অনেক সময় কিছুর সঙ্গে জড়িত না থেকেও এই রাজনীতির কারণে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয়। শিক্ষকরা কতটুকু রাজনীতি করবেন সেটা তাদেরই নির্ধারণ করতে হবে। তাদের এখন বড় দায়িত্ব হবে, শিক্ষক হিসেবে বিশ্বাসযোগ্যতা বজায় রাখা। রাজনীতি আদর্শের জায়গা থেকে করা হলে শিক্ষকরা অবশ্যই করবেন। ছাত্র-ছাত্রীদের সেভাবে তৈরি করবেন।’


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ