উপাচার্যের বিরুদ্ধে অর্ধশতাধিক অভিযোগ, ১৮ দফা দাবিতে স্মারকলিপি

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়  © ফাইল ফটো

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ এনে ১৮ দফা দাবিতে স্মারকলিপি দিয়েছে ভিসি বিরোধী শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সমন্বিত সংগঠন অধিকার সুরক্ষা পরিষদ। ভিসি ক্যাম্পাসে না থাকায় বৃহস্পতিবার দুপুরে ভিসির পিএস আমিনুর রহমানকে স্মারকলিপি দেয় সংগঠনটির নেতারা।

শিক্ষক নেতারা জানিয়েছেন, কাডেমিক, প্রশাসনিক ও আর্থিক অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রায় অর্ধশতাধিক অভিযোগ এনে নিয়োগ শর্ত অনুযায়ী সার্বক্ষণিক ক্যাম্পাসে অবস্থান, ইউজিসি অননুমোদিত বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ বন্ধ, ঢাকায় লিয়াজোঁ কার্যক্রম বন্ধ করে সিন্ডিকেট, নিয়োগ বোর্ডসহ সকল সভা ক্যাম্পাসে আয়োজনের ১৮ দফা দাবিতে এ স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে।

অধিকার সুরক্ষা পরিষদের আহবায়ক প্রফেসর ড. মতিউর রহমান স্বাক্ষরিত স্মারকলিপিতে করা দাবিগুলো হলো- শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার আয়োজন করে দ্রুত সেশনজট নিরসন, ভর্তি জালিয়াতি ও শেখ হাসিনা হল, ড. ওয়াজেদ মিয়া রিসার্স এন্ড ট্রেনিং ইন্সটিটিউট প্রকল্প ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নির্মাণে দুর্নীতির সাথে জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত।

এছাড়া অস্বচ্ছ নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ, রেজিস্ট্রারের সার্বক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান, যোগ্য শিক্ষকদের ডীন ও বিভাগীয় প্রধান নিয়োগ, কর্মচারী পদোন্নতি নীতিমালা বাস্তবায়ন, হাইকোর্টের আদেশ বাস্তবায়ন করে হয়রানীমূলকভাবে সাময়িকভাবে বরখাস্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চাকরি ফিরিয়ে দেয়া, এবং উদ্দেশ্যমূলক বদলী বন্ধ করা।

ড. মতিউর রহমান বলেন, বর্তমান ভিসি যোগদানের পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার এক নৈরাজ্যকর পরিবেশের মধ্য দিয়ে সময় পার করছে। বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির ভিসি যে স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন সবই যে ছিল প্রতারণা তা বুঝে গেছে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার। ভিসির একের পর এক দায়িত্বজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ডে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক শিক্ষা পরিক্রমা স্তব্ধ হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।


মন্তব্য