চালুর আগেই অর্ধেক মেয়াদ শেষ ৬ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের

চালুর আগেই অর্ধেক মেয়াদ শেষ ৬ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের

আইন অনুযায়ী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদনের সময় ৭ বছরের জন্য সাময়িক সনদ বা অনুমতি দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ সময়ের মধ্যে বেশকিছু শর্ত পূরণ করে স্থায়ী সনদের জন্য আবেদন করতে হয়। যদিও  সাময়িক সনদের মেয়াদের অর্ধেক সময় পার করলেও এখনও শিক্ষা কার্যক্রমই শুরু করতে পারেনি ছয় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়।

অনুমোদন পেয়েও শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করতে না পারা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে রয়েছে, রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়, নারায়ণগঞ্জে রূপায়ণ একেএম শামসুজ্জোহা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহীতে আহসানিয়া মিশন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা খান বাহাদুর আহছানউল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী শাহ মখদুম ম্যানেজমেন্ট ইউনিভার্সিটি, বরিশালে ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি।

প্রস্তাবিত রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের (বিওটি) সদস্য হিসেবে রয়েছেন  ইউজিসির সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক নজরুল ইসলাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরু না হওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে অধ্যাপক নজরুল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়টি অনুমোদন নেয়া হয়েছিল কেরানীগঞ্জে। কিন্তু সেখানে কী করে চলবে এটি। এজন্য অনেক চেষ্টা করে উত্তরায় পরিচালনার অনুমতি নেয়া হয়েছে। জানুয়ারিতে কার্যক্রম শুরুর একটা উদ্যোগ নেয়া হবে।

নারায়ণগঞ্জের রূপায়ণ একেএম শামসুজ্জোহা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে দুই বছর আগে একবার ইউজিসিতে যোগাযোগ করা হয়। এরপর থেকে আর কোনো যোগাযোগ করা হয়নি বলে জানান ইউজিসি কর্মকর্তারা।

অনুমোদনের ৩ বছর পর কার্যক্রম শুরুর উদ্যোগ নিয়েছে রাজশাহীর আহসানিয়া মিশন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়টির ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেছে ইউজিসির একটি পরিদর্শক দল।

এদিকে চালুর আগেই মালিকানা নিয়ে দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছেখুলনার খান বাহাদুর আহছানউল্লা বিশ্ববিদ্যালয়। যদিও বিশ্ববিদ্যালয়টির দেখভালের দায়িত্বে থাকা কাজল চক্রবর্তী জানান, দ্বন্দ্বের অভিযোগ সঠিক নয়। শিক্ষা কার্যক্রম চালুর কাজ প্রক্রিয়াধীন।

রাজশাহীর শাহ মখদুম ম্যানেজমেন্ট ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস পরিদর্শন করে এসেছে ইউজিসির কর্মকর্তারা। আইন অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটির পর্যাপ্ত জায়গা সংবলিত ভবন নেই। অন্যদিকে প্রোগ্রামের আবেদন করেছিল। বিশেষজ্ঞ দল দিয়ে ইউজিসি তা মূল্যায়ন করিয়ে রেখেছে। কিন্তু উদ্যোক্তাদের কেউ গত ১ বছরে যোগাযোগ করেনি।

বরিশালের ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটিরও একই দশা। অবশ্য প্রতিষ্ঠানের উপ-রেজিস্ট্রার আমিনুল ইসলাম জানান, প্রতিষ্ঠানটি চালু করতে যে ভবন ভাড়া নেয়া হয়েছিল সেটি রেল বিভাগ অধিগ্রহণ করে নেয়। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয় শুরু করতে সময় লাগছে। জানুয়ারিতে সেশন শুরুর চিন্তা আছে।


মন্তব্য