একই স্ট্যাটাসে শেখ হাসিনা ও বেগম জিয়ার ছবি দিয়ে যা বললেন সোহেল তাজ

করোনা
সোহেল তাজ  © ফাইল ছবি

উশৃঙ্খল আচরণকে নারী/ব্যক্তি স্বাধীনতার সাথে মিলিয়ে ফেলাকে সামাজিক সমস্যার কারণ বলে দাবি করেছেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল তাজ। গত ১৬ সেপ্টেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সিগারেট হাতে পোজ দেওয়া চিত্রনায়িকা পরীমনির পোস্টের পর গঠনমূলক সমালোচনা করেছিলেন সোহেল তাজ। এর আগে তিনি নিজের ফেসবুক পেজে এক পোস্টে পরীমণির এ ধরনের কাজের সমালোচনা করেন। আজ সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) নারী স্বাধীনতার উদাহরণ তুলে ধরে তিনি আবারো তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট করেন। যেই পোস্টের সাথে তিনি মাদার তেরেসা, সুফিয়া কামাল, বেগম রোকেয়া, ম্যারি কিউরী, মালালা ইউসুফজাই, ইন্দিরা গান্ধী, মার্গারেট থ্যাচার, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মতো মহিয়সী ও গুণী নারীদের ছবি আপলোড করেছেন। তার পোস্টটি দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলোঃ       

'আমি ব্যক্তি স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। কে কি পোশাক পড়লো বা ধূমপান করলো কি না করলে এগুলো শুধু নারী স্বাধীনতাই না বরং ব্যক্তি স্বাধীনতার কাতারে পরে আর তাই আমি মনে করি যে একজন মানুষের (নারী বা পুরুষ) অধিকার আছে তার নিজের পছন্দ মত তার ব্যক্তিগত জীবন পরিচালনা করার।

সমস্যা হচ্ছে যখন আমরা উশৃঙ্খল আচরণকে নারী/ব্যক্তি স্বাধীনতার সাথে মিলিয়ে ফেলি। বাংলাদেশে যখন মাদক একটি বিরাট সমস্যা যখন সোশ্যাল মিডিয়ার এডিকশনের কারণে ছেলেমেয়েরা মানসিকভাবে আক্রান্ত হচ্ছে (ডিপ্রেশন) তখন নতুন প্রজন্মের জন্য প্রয়োজন ইতিবাচক অনুপ্রেরণা যা আমরা পাই অনুকরণীয় ব্যক্তিত্বদের জীবন থেকে আর সেটা কখনোই সম্ভব হবে না যদি কিছু উশৃঙ্খল সেলিব্রিটিরা তাদের বেপরোয়া ব্যক্তি জীবনধারা তাদের সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের নতুন প্রজন্মের উপর চাপিয়ে দেয়।

আমাদের নতুন প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে হবে এমন ব্যক্তিত্বদের যারা তাদের দৃঢ়তা মনোবল এবং আত্মবিশ্বাসকে কাজে লাগিয়ে সকল প্রতিকূলতা পার করে শুধু নারী অধিকারের লড়াই করেন নাই বরং সকল মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন- এনাদের ইতিবাচক কর্মের মধ্যে রেখে গেছেন নতুন প্রজন্মের জন্য অনুপ্রেরণা।'


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ