বঙ্গবন্ধুর চিন্তা চেতনায় প্রথমে ছিল শিক্ষা: শিক্ষা উপমন্ত্রী

শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল
শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল  © ফাইল ফটো

শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর চিন্তা-চেতনায় প্রথমে ছিল শিক্ষা। এ কারণেই তিনি পঞ্চাশের দশকে ছাত্রলীগের দায়িত্বে থাকাকালে পূর্ব পাকিস্তানে প্রাথমিক শিক্ষা বিস্তারের জন্য আন্দোলন করে কারাবরণ করেন।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের আওতায় অস্বচ্ছল ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে ২০১৯-২০ অর্থবছরের শিক্ষাবৃত্তি বিতরণ অনুষ্ঠান তিনি এসব কথা বলেন।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রদীপ চক্রবর্তী। জেলা পরিষদের উপসহকারী প্রকৌশলী অপু কুমার বড়ূয়ার সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাব্বির ইকবাল।

শিক্ষা উপমন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর এ চেতনাকে ধারণ করে সবাইকে শিক্ষা অর্জনে ব্রতী হতে হবে। এক্ষেত্রে সবাইকে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে, যে শিক্ষা দুর্নীতিমুক্ত অগ্রসর জাতি গঠনের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এ সময় শিক্ষা ক্ষেত্রে জেলা পরিষদের কার্যক্রমের প্রশংসা করেন উপমন্ত্রী।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ সালাম বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্যকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষায় উৎসাহীকরণে বছরের প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিচ্ছেন। পাশাপাশি মেধাবী, গরিব ও অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দিচ্ছেন। তারই অংশ হিসেবে জেলা পরিষদের এই শিক্ষা বৃত্তি দেওয়া।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের উপসচিব মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য কাজী আবদুল ওহাব, শেখ মোহাম্মদ আতাউর রহমান, জাফর আহমেদ, শওকত আলম, আ ম ম দিলসাদ, মোহাম্মদ ইউনুছ, সংরক্ষিত আসনের সদস্য দিলোয়ারা ইউসুফ, রেহানা বেগম চৌধুরী, অ্যাডভোকেট উম্মে হাবিবা প্রমুখ।

এসময় জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে এবার কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ৩২৪ শিক্ষার্থীকে প্রায় ২৮ লাখ টাকার বৃত্তি দেওয়া হয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ